• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৬ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২০ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

করোনা-পরবর্তী সময়ে বেড়েছে পণ্য আমদানি


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১০ নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০১:৫১ পিএম
করোনা-পরবর্তী পণ্য আমদানি বৃদ্ধি
বাংলাদেশ ব্যাংক

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের বাজারে করোনা-পরবর্তী সময়ে পণ্য আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে ৪৫ শতাংশের মতো। জানা যায়, গম এবং মসলাজাতীয় পণ্য ছাড়া প্রায় সব পণ্যেরই আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, গত জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় আমদানি বেড়েছে ৪৭ দশমিক ৫৬ শতাংশ। এ সময় আমদানি হয়েছে ১ হাজার ৮৭২ কোটি ডলারের পণ্য। গত বছরের একই সময়ে আমদানি হয়েছিল ১ হাজার ২৬৮ কোটি ডলারের পণ্য।

প্রতিবেদনে, চলতি বছরের জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে ৫৪ কোটি ডলারের চাল ও গম আমদানি হয়। গত বছরের একই সময়ে আমদানি হয় ৪৫ কোটি ডলারের খাদ্যপণ্য। গত বছরের তুলনায় চলতি বছর চাল আমদানি অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে, তবে কমেছে গম আমদানি।

চলতি জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্য, মসলা, তেল, চিনিসহ বিভিন্ন ভোগ্যপণ্য আমদানি হয় ১১৬ কোটি ডলারের, গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৮২ কোটি ডলার। এ ছাড়া পেট্রোলিয়াম, পোশাক খাত, ওষুধ ও প্লাস্টিক খাতের পণ্য আমদানি হয় ১ হাজার ১৪৮ কোটি ডলারের, গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৭৪২ কোটি ডলার। অন্যদিকে মূলধনি যন্ত্র ও মূলধনি যন্ত্র আমদানি হয় ৩৬৯ কোটি ডলারের, গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ২৬৩ কোটি ডলারের।

তথ্যমতে চাল, অপরিশোধিত জ্বালানি, সুতা ও ওষুধ খাতের বিভিন্ন পণ্য ও সারজাতীয় পণ্যের আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা আশঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছেন, পণ্য আমদানি বাড়ছে। এর পাশাপাশি বৃদ্ধি পেয়েছে জ্বালানি তেলের দাম। এতে আমদানি খরচ বৃদ্ধি পেয়েছে। আমদানি খরচ বেড়ে যাওয়ায় রিজার্ভের ওপরে চাপসৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে ব্যাংক কর্মকর্তারা।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

অর্থনীতি বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image