• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ৩০ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় খাল দখল করে বানানো হয় ড্রেন, ৪০ বছর পর উদ্ধার


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ১২ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:৩২ পিএম
খাল দখল করে বানানো হয় ড্রেন
উদ্ধারকৃত খাল

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের উত্তর সুহিলপুর গ্রামের ভেতর দিয়ে একটি খাল প্রবাহিত ছিল। ২০ ফুট প্রস্থের ওই খাল দিয়ে এক সময় নৌকা চলাচল করতো। কালের পরিক্রমায় খালটির দুইপাশ ভরাট করে বানিয়ে দেওয়া হয়েছিল ছোট্ট ড্রেন। অবশেষে প্রায় ৪০ বছর পর পুনরায় খালটি উদ্ধারে করে খনন কাজ শুরু করা হয়েছে।

স্থানীয় মানিক মিয়া ঢাকা নিউজ ২৪.কম কে বলেন, গ্রামের ভেতর দিয়ে দীর্ঘকাল আগে একটি খাল ছিল। যে খাল দিয়ে নৌকা চলাচল করতো বলে মুরুব্বিরা জানিয়েছেন। কিন্তু এখন দেখলে বোঝার উপায় নেই, যে এখানে কোনো খাল ছিল। খালটিকে ছোট ড্রেনে পরিণত করা হয়েছিল। ফলে বর্ষাকালে গ্রামে জলাবদ্ধতা লেগেই থাকতো। এতে প্রায় ৫ হাজার মানুষ দুর্ভোগের শিকার হচ্ছিলেন। ইউনিয়নে বিগত দিনে  সাতজন চেয়ারম্যান ক্ষমতায় থাকাকালে খালটি উদ্ধারে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছিলেন। নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ ভূইয়া নির্বাচনের আগে কথা দিয়েছিলেন তিনি নির্বাচিত হলে খালটিকে উদ্ধার করবেন। তাই তিনি খালটি উদ্ধারের কাজ শুরু করেছেন।

সুহিলপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড সদস্য কামরুল ইসলাম  বলেন, এই এলাকার মানুষ দীর্ঘদিন ধরে জলাবদ্ধতার শিকার হচ্ছিলেন। পানি অপসারণের কোনো ব্যবস্থা ছিল না। আব্দুর রশিদ ভূইয়া চেয়ারম্যান হওয়ার পর তার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কাজ শুরু করায় তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।

সুহিলপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ ভূইয়া  বলেন, উত্তর সুহিলপুরের খালটির দুইপাশে পাঁচ হাজার জনবসতি রয়েছে। তারা প্রতিবছর জলাবদ্ধতার শিকার হচ্ছিলেন। তাই খালটিকে অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে উদ্ধার করতে এলাকাবাসীর সঙ্গে আলোচনা করে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছি। উচ্ছেদ করতে গিয়ে যদি কোনো পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তাহলে তাদের ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সহায়তা করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব অর্থায়নে খালটি উদ্ধার করা হচ্ছে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / মনিরুজ্জামান মনির/কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image