• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

চট্টগ্রামে উদীচীর বিভ্রান্তি দূর করার আহবানে উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সংবাদ সম্মেলন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ০১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৩৯ পিএম
চট্টগ্রামে উদীচীর বিভ্রান্তি দূর করার আহবানে
চট্টগ্রামে উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সংবাদ সম্মেলন

নিউজ ডেস্ক : বেশ কিছুদিন ধরেই চট্টগ্রামে উদীচীর কার্যক্রম নিয়ে কিছু বিভ্রান্তি চলছে। এসব বিষয়ে কেন্দ্রীয় সংসদের বক্তব্য তুলে ধরার লক্ষ্যে গত ০১ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) সকাল ১১টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের এস রহমান মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়। উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি জামসেদ আনোয়ার তপনের সভাপতিত্বে উক্ত সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় সংসদের পক্ষ থেকে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন উদীচীর সাধারণ সম্পাদক অমিত রঞ্জন দে।  

লিখিত বক্তব্যে উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জানান, "উদীচী কাজ করছে মানবমুক্তি, স্বাধীনতা ও সাম্যের সমাজ নির্মাণের প্রত্যয়ে। প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার ও আদর্শের প্রতি দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ হাজার হাজার সংস্কৃতিকর্মীর নিষ্ঠা ও ভালবাসার কারণেই সাংগঠনিক শৃঙ্খলাকে উড্ডীন রেখে উদীচী দেশের বৃহত্তম সাংস্কৃতিক সংগঠনের মর্যাদায় অধিষ্ঠিত হয়েছে। শিল্পকলায় অনন্যসাধারণ অবদানের জন্য বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী ২০১৩ সালে অর্জন করে গৌরবপূর্ণ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা ‘একুশে পদক’।" 

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সংগঠনের সকল পর্যায়ে সর্বোচ্চ গণতান্ত্রিক পদ্ধতি অনুসরণ করার কারণে বিশাল এই কর্মযজ্ঞে সকল মতামতকে ধারণ করে সুশৃঙ্খল সংগঠনের এক অনন্য নজির স্থাপন করেছে উদীচী। সমাজে বিদ্যমান অনৈক্য ও বিভাজনের সংস্কৃতির মধ্যেও একথা আমরা গর্বের সঙ্গে বলতে পারি যে, উদীচী একমাত্র সাংস্কৃতিক সংগঠন যে প্রতিষ্ঠার অঙ্গিকারে দৃঢ় থেকে পঞ্চাশ বছরেরও অধিককাল সাংগঠনিক ঐক্য বজায় রেখেছে। সাংগঠনিক ঐক্য ও শৃঙ্খলার এই অনন্য শক্তির উৎস হচ্ছে সংগঠনের ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্রের প্রতি আমাদের সীমাহীন আনুগত্য।

উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জানান, "গভীর দুঃখের সঙ্গে বলতে হচ্ছে যে , কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অমান্য ও গঠনতন্ত্রে বর্ণিত শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় উদীচী'র সর্বোচ্চ ফোরাম জাতীয় সম্মেলন চট্টগ্রাম জেলা কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ২০১৯ সালে। কিন্তু চট্টগ্রাম জেলার কয়েকজন সদস্য জাতীয় সম্মেলনের সিদ্ধান্ত অমান্য করে এবং উদীচীর ব্যানারে একের পর এক কর্মসূচী পালন করে চলেছেন যা সারাদেশের উদীচী কর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি করছে। ক্রমাগত অসাংগঠনিক আচরণের দায়ে দীর্ঘ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে গত ২২ জানুয়ারি ২০২১ অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় চট্টগ্রামের কয়েকজন সদস্যের সাধারণ সদস্যপদ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয় যা সেইসব সদস্যকে যথাযথ পন্থায় অবহিত করা হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি সকলকে জানানো হয়েছিল। চট্টগ্রামের বহুল প্রচারিত পত্রিকাসমূহে সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছিল।" 
  
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, "চট্টগ্রাম  জেলা কমিটি বিলুপ্তির পর যথাযথ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সেখানে উদীচীর কার্যক্রম পুনরায় সচল করা হয়েছে। ২০ জানুয়ারি ২০২২ কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত জেলা সম্মেলনের মধ্য দিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত হয়েছে এবং ঐ কমিটি কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সভাপতি জসিম চৌধুরী সবুজ ও সাধারণ সম্পাদক অসীম বিকাশ দাশ এর নেতৃত্বে ২৯ সদস্যের চট্টগ্রাম জেলা সংসদ ধারাবাহিক কার্যক্রমের মাধ্যমে চট্টগ্রামের সাংস্কৃতিক ও সামাজিক ক্ষেত্রে  ভূমিকা রেখে চলেছে।"  

সংবাদ সম্মেলনে উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদ অনুমোদিত উদীচী চট্টগ্রাম জেলা সংসদকে সর্বতোভাবে সহযোগিতা করার জন্য চট্টগ্রামের সকল সাংস্কৃতিক সংগঠন, সংস্কৃতিকর্মী, সংস্কৃতি-অনুরাগী সুধী সমাজ, সরকারী বেসরকারী সাংস্কৃতিক ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান, প্রশাসন, প্রগতিশীল রাজনৈতিক দল, শ্রেণি-পেশা'র সংগঠনসহ সকলের কাছে উদাত্ত আহ্বান জানানো হয়। একইসাথে উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদ অনুমোদিত বৈধ কমিটি ব্যতীত অন্যদেরকে উদীচী'র নাম, লোগো ব্যবহার করে কার্যক্রম পরিচালনা থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি মোল্লা হাবিবুর রাছুল মামুন, ইকরামুল কবির ইল্টু, সহ-সাধারণ সম্পাদক সঙ্গীতা ইমাম, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য আরিফ নূর, সদস্য জহিরুল ইসলাম স্বপন, জহির উদ্দিন বাবর উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা সংসদের সভাপতি জসিম চৌধুরী সবুজ, সাধারণ সম্পাদক অসীম বিকাশ দাশ।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image