• ঢাকা
  • রবিবার, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৬ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

জামালপুরে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক অনুষ্ঠান


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ১০ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৫৩ পিএম
জামালপুরে
দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক অনুষ্ঠান

জামালপুর প্রতিনিধি : দুর্নীতি প্রতিরোধে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে জামালপুরে অনুষ্ঠিত হয় দুর্নীতি বিরোধী উপজেলা পর্যায়ে বিদ্যালয় ভিত্তিক বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান।

সোমবার (১০ জুন) সকালে অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন জামালপুর সদর উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা জিন্নাত শহীদ পিংকি। মূখ্য আলোচক ও বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়, জামালপুরের উপ-পরিচালক মলয় কুমার সাহা। অন্যান্য বিচারক ছিলেন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মুখলেছুর রহমান ও শিক্ষক মনোয়ারা খানম।

এতে মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর সেলিম। 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্য নূর আলম সুজন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহব্বত কবীর, সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন মিন্টু, দুদকের উপসহকারী পরিচালক মো. আতিউর রহমান প্রমুখ।

জামালপুর পাবলিক লাইব্রেরি মিলানায়তনে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হন জামালপুর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়। রানার্স আপ হয় সান সাইন ল্যাবরেটরি স্কুল। শ্রেষ্ট বক্তা হিসেবে পুরস্কৃত হয় জামালপুর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়র শিক্ষার্থী ও বিজয়ী দলের দলনেতা মারিয়া কবির প্রেমা।

প্রতিযোগিতায় ৪টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। অন্য দুটি হল জামালপুর কালেক্টরেট স্কুল এবং হযরত শাহজামাল (রহঃ) স্কুল এন্ড কলেজ।প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া প্রত্যেক শিক্ষার্থীকেই দুদকের শ্লোগান লেখা শিক্ষা উপকরণ দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়। তবে চূড়ান্ত পর্বে চ্যাম্পিয়ন ও রানার-আপ দলের সদস্যদের মাঝে ক্রেস্ট ও মেডেল প্রদান করা হয়।

বিতর্কিকদের প্রাণবন্ত যুক্তি ও তথ্য-উপাত্ত সমৃদ্ধ তর্ক যুদ্ধ দর্শক, শ্রোতাদের কাছে উপভোগ্য হয়ে উঠে। অনুষ্ঠানে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, অতিথিসহ শতাধীক লোক উপস্থিত ছিলেন।

বিতর্কের বিষয় নির্ধারণ করা হয় প্রথম দলের জন্য 'মূল্যবোধ ও দেশপ্রেমের অভাবেই দুর্নীতির বিস্তার ঘটে, দ্বিতীয় দলের জন্য 'অভাব নয়, সীমাহীন লোভই দুর্নীতির প্রধান কারণ'। চূড়ান্ত দলের জন্য বিষয় নির্ধারণ করা হয়' জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা ব্যতিত দুর্নীতি নির্মূল করা কোনক্রমেই সম্ভব নয়।

দুদকের উপ-পরিচালক মলয় কুমার সাহা বলেন, আগামীদিনে দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় আজকের ছাত্র-ছাত্রীরাই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তাদেরকে উপযুক্তভাবে গড়ে তুলতে বিশেষ করে দুর্নীতি বিরোধী চেতনায় ঋদ্ধ করতে দুদক ও দুপ্রক বিতর্ক অনুষ্ঠানসহ নানামূখী কার্যক্রম বাস্তবয়ান করে আসছে। তিনি প্রতিটি বিদ্যালয়ে সততা সংঘকে কার্যকর করতে শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের কাছে উদাত্ত আহ্বান রাখেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিন্নাত শহীদ পিংকি বিতর্কের মাধ্যমে দুর্নীতিবিরোধী চেতনাবোধ জাগ্রত করতে এ ধরনের আয়োজনকে স্বাগত জানান। বেশী বেশী স্কুল কলেজ পর্যায়ে বিতর্ক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলে তিনি সহায়তার আশ্বাস দেন। তিনি নিজেও একজন বিতার্কিক হিসেবে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অসংখ্য প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার কথা জানান।

সদর থানার ওসি মুহব্বত কবির বলেন, দুর্নীতি নির্মূল করতে হলে এ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হলে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

উল্লেখ সাত উপজেলায় বিতর্ক অনুষ্ঠান সফলভাবে শেষ হয়েছে। আগামী ২৭ জুন জেলা পর্যায়ে বিতর্ক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে বলে দুদক সূত্র জানায়।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image