• ঢাকা
  • সোমবার, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৭ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

চাঁদা না দেয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মার্কেট সন্ত্রাসীদের দখলে 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২১ মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৪৬ পিএম
চাঁদা না দেয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মার্কেট সন্ত্রাসীদের দখলে 
সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক: 
মাগুরায় চাঁদা না দেয়ায় ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের ইন্ধনে কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের পূর্ব পাশের বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মার্কেট দখলে নিয়েছে স্থানীয় সন্ত্রাসী বাহিনী। থানা পুলিশের স্মরণাপন্ন হলেও তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি, এমনকি আদালতের নির্দেশও অমান্য করছে। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

২১ মার্চ (মঙ্গলবার) দুপুরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন (ক্র্যাব) মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য আব্দুর রহমান, আসাদুজ্জামান ও এনামুল হক।

লিখিত বক্তব্যে আব্দুর রহমান জানান, আমরা বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা ক্ষমতাসীন দলের কয়েকজন নেতার আশির্বদপুষ্ট মাগুরা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শেখ রেজাউল ইসলামের পরোক্ষ ইন্দনে সন্ত্রাসী গ্রুপটি এলাকায় চাঁদাবাজী ও ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। এই সন্ত্রাসীরা তার কাছে চাঁদা দাবি করে ব্যর্থ হওয়ার পর গত ১৪ ফেব্রুয়ারি রাত ১১টার দিকে সুমন, মিন্টু মোল্লা, নিরু মোল্লা, আজাদ মোল্লা, সাজ্জাদ মোল্লা, নাসির মোল্লা, ইউনুস মোল্লা, জোবান মোল্লা, সোনা মোল্লা, জাহিদুল মোল্লাসহ আরো অনেকে মার্কেটে স্থাপিত সিসি ক্যামেরা খুলে নিয়ে লাইট নিভিয়ে বিভিন্ন দোকানের তালা ভেঙ্গে ৫ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। মার্কেটের সামনে মাটি ফেলে মার্কেট বন্ধ করে দেয়। 

এ ঘটনাটি স্থানীয় থানা পুলিশকে জানালে তারা কোন সহযোগিতা করেনি। গত ৩ মার্চ রাত ১১টার দিকে তাদের একটি ট্রাক্টর চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় চোরকে হাতেনাতে ধরা হয় এবং থানা পুলিশকে বিষয়টি জানালে পুলিশের একটি টহল টিম ট্রাক্টর রেখে চোরদের ছেড়ে দেয়।

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি আদালতকে অবহিত করলে আদালত আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে থানা পুলিশকে আদেশ দেয়। কিন্তু পুলিশ নির্বিকার থাকায় ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে একটি মামলা করেন। যা সিআইডি তদন্ত শুরু করেছে। সন্ত্রাসী বাহিনীর কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছি। তাদের জীবনের নিরাপত্তা ও সম্পদ রক্ষায় সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানে সংশ্লিষ্টদের জরুরী হস্তক্ষেপের দাবি জানান তিনি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image