• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ২২ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

ভূমি সেবায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বাহারছড়ার ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর  


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:১৫ পিএম
ভূমি সেবায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন
বাহারছড়ার ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর  

কক্সবাজার প্রতিনিধি : ভূমি সেবায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর যোগদানের পর ভু‌মি অফিস থেকে অনিয়ম-দূর্নীতি প্রতিরোধ করে মডেল ভূ‌মি অ‌ফিসে রুপান্তরিত করতে নিরলস ভাবে কাজ করেছেন তি‌নি। ইউনিয়ন ভু‌মি অফিসে সহকারী অফিসার যোগদানের পর ইউনিয়ন ভূ‌মি অফিসের দৃশ্যপট পাল্টে গেছে গতিশীল হয়েছে কাজ, দূর হয়েছে ভূ‌মির মা‌লিক‌দের হয়রানি ও ভোগান্তি।তিনি এখানে যোগদানের পরে তার নিজেস্ব প্রচেষ্টায় ঢেলে সাজিয়েছেন বাহারছড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস ও ভূমি সেবা।

শিলখালী এলাকার হাফেজ উদ্দিন  বলেন, বাহারছড়া ইউনিয়নে তার দায়িত্ব পালনে সে সতেষ্ট এবং নিষ্টার সাথে এলাকা বাসীকে সেবা প্রদান করে আসছেন। তার আচরণে ভুমি সেবা গ্রহিতারা খুশি।ভূমি অফিসের চারপাশ্বে সুসজ্জিত বিভিন্ন প্রজাতির ফুল গাছ লাগিয়েছেন।

ভূমি অফিসের বারান্দায় কথা হয় বেশ কয়েকজন গ্রাহকদের সাথে  তারা জানান, আগে ভূমি অফিসে এতো সহজে কাজ করা যেতনা। সহকারী ভুমি কর্মকর্তা আবুল মনসুর দায়িত্ব গ্রহনের পর থেকে বাহারছড়া ভুমি অফিসে এসে জমি সংক্রান্ত সকল সমস্যা সমাধান করা যায়। উনি সকল গ্রাহকের সাথে নম্র আচার ব্যবহার করেন বলে জানান তারা। কথা হয় ভূমি অফিসে আসা জসীম উদ্দীনের সাথে।তিনি বলেন,ভূমি অফিসে এসে মনটা ভাল হয়ে গেছে। সুরম্য ভবনের পাশাপাশি কর্মকর্তা কর্মচারীদের ব্যবহার যেন বদলে গেছে। তার মতে আমরা গ্রাহকরা এরকম সেবাই আশা করি। সাধারণ মানুষ সেবা পাওয়ার স্থান আশ্রয়স্থ হিসেবে মনে করে থাকে।সেই আশ্রয়স্থলের কর্ণধার হয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রূপকল্প বাস্তবায়নে আমরাই হতে পারি সেরা হাতিয়ার। আন্তরিকতাই পারে সাধারণ মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে বলে জানান বাহারছড়া ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর। ভূমি সেবা গ্রহীতারা বলছেন, ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর যোগ্য, দক্ষ ও সফল ভূমি অফিসার। সরকার অনলাইনে  রেজিষ্টশনের মাধ্যমে ভূমি উন্নয়ন কর বা জমির খাজনা ব্যবস্থাকে ডিজিটাল করতে অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন কার্যক্রম করেছে। 

এতে করে করে ভূমি মালিকগন ভূমি অফিসে না গিয়েই, অর্থাৎ ঘরে বসে র্স্মাট ফোন অথবা কম্পিউটার/ ল্যাপটপে ইন্টারনেটের  মাধ্যমে অনলাইনে সেখান থেকেই ভূমি উন্নয়ন কর বা খাজনা পরিশোধ করে দাখিলা সংগ্রহ করতে পারবেন। এতে করে ভুমি মালিকগণের জমির উন্নয়ন কর বা জমির খাজনা দিতে সহজ হবে। এ লক্ষ্যে বাহারছড়া ভূমি অফিসে মৌজাওয়ারী ভূমি মালিকের তথ্য অনলাইনে এন্ট্রি দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন কার্যক্রম করে সেবা নিচ্ছে ভূমি গ্রাহকরা। 

রেজিষ্ট্রেশনের জন্য প্রত্যেক ভুমি মালিকগণকে তার মোবাইল নাম্বার, পাসপোর্ট সাইজের ছবি, জাতীয় পরিচয়পত্র,পূর্ববর্তী দাখিলার কপি এবং প্রয়োজনে খতিয়ানের কপি নিয়ে  ভূমি অফিসে যোগাযোগ করে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন করার জন্য জমি মালিকদের আহ্বান জানিয়েছেন বাহারছড়া ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর। সর্বপূরী অফিসের ভারসাম্য অত্যন্ত সুন্দর। বাহারছড়া ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবুল মনসুর জানান, আমি ভূমি ব্যবস্থাপনাকে এমনভাবে ঢেলে সাজানোর জন্য চেষ্টা করেছি যাতে করে সেবা গ্রহিতারা কোন ধরণের প্রতারণা ও হয়রানির শিকার না হন। তিনি আরও বলেন, অফিস সুন্দর ছন্দময়। যে কোন ব্যক্তি আমার সাথে সরাসরি দেখা করে সেবা নিতে পারছেন।যতটুকু পারি গ্রাহকদের সেবা দিচ্ছি।এবং সেবা দিবে বলে জানান তিনি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image