• ঢাকা
  • বুধবার, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৯ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম সফরের যাবেন ভ্লাদিমির পুতিন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১০:০৯ পিএম
থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম সফরের যাবেন
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন

নিউজ ডেস্ক:  রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম সফরের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন । থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম সরকারের দেওয়া বিবৃতিতে এমন ঘোষণা দেওয়া হয়েছে ।

ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলাকে কেন্দ্র করে আন্তর্জাতিকভাবে অনেকটা একঘরে হয়ে পড়েছেন পুতিন । হাতে গোনা কয়েকটি মিত্রদেশ তাঁর পাশে আছে । হাজারো ইউক্রেনীয় শিশুকে রাশিয়ায় নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত( আইসিসি) পুতিনের বিরুদ্ধে একটি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন । থাইল্যান্ড আইসিসি রোম স্ট্যাটিউটে স্বাক্ষরকারী দেশ নয় । থাইল্যান্ড রাশিয়াকে সহযোগিতা দিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে । আর সোভিয়েত ইউনিয়ন যুগ থেকেই রাশিয়ার সঙ্গে ভিয়েতনামের খুব দৃঢ় সম্পর্ক আছে ।

মঙ্গলবার ভিয়েতনাম সরকারের ওয়েবসাইটে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে । বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ শিগগির ’ ভিয়েতনাম সফরের জন্য পুতিনকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভো ভান থুওং । পুতিন ‘ খুশিমনে ’ সে আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন ।

ভিয়েতনামের সরকারি ওয়েবসাইটে বলা হয়, থুওং এবং পুতিন দুই দেশের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সহযোগিতা বাড়ানো নিয়ে আলোচনা করেছেন । ভিয়েতনামে সবচেয়ে বেশি অস্ত্র সরবরাহ করে রাশিয়া ।

আগামী বছর থাইল্যান্ডে সফর করার জন্য দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্রেথা থাভিসিনও রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন । আজ বুধবার চীনের বেইজিংয়ে স্রেথা এ কথা বলেছেন ।
স্রেথা বলেন, ‘ আগামী বছর থাইল্যান্ড সফরের জন্য আমি তাঁকে( পুতিন) আমন্ত্রণ জানিয়েছি । প্রেসিডেন্ট পুতিন ফুকেট( থাই দ্বীপ) পছন্দ করেন । ’

থাই সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়, পুতিন আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন । তবে সফরের তারিখ এখনো ঠিক হয়নি । সম্প্রতি ভিসা প্রক্রিয়ায় কিছুটা পরিবর্তন এনেছে থাইল্যান্ড । রুশ নাগরিকদের তিন মাস মেয়াদি ভিসা দেওয়া হচ্ছে । আগে ভিসার মেয়াদ ৩০ দিন ছিল ।

ইউক্রেনের কিছু অঞ্চলকে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত করার নিন্দা জানিয়ে গত বছর জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ভোটাভুটি হয় । চীন ও ভারতের পাশাপাশি থাইল্যান্ডও তখন ভোটদানে বিরত থাকে ।

চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ ফোরাম চলার ফাঁকে স্রেথা এবং থুওং দুজনই পুতিনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

আরো পড়ুন

banner image
banner image