• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ২২ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

আগুন লাগিয়ে মায়ের বসতবাড়ী পুড়িয়ে দিল পুত্র 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২:০১ পিএম
আগুন লাগিয়ে মায়ের
বসতবাড়ী পুড়িয়ে দিল পুত্র 

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি : কক্সবাজারের টেকনাফে নরপশু ছেলের লাগিয়ে দেওয়া আগুনে পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে একটি বসতবাড়ী।

১৭ জানুয়ারী (বুধবার) সন্ধ্যা ৬ সাড়ে ৬টার দিকে টেকনাফ উপজেলা সাবরাং ইউপির শাহপরীর দ্বীপ রাস্তার মাথা বাজার সংলগ্ন এলাকার প্রবাসী দুদু মিয়ার বসতবাড়ীতে অগ্নিকান্ডের এই ঘটনাটি সংঘটিত হয়।

সত্যতা নিশ্চিত করে বাড়ির মালিক প্রবাসী দুদু মিয়ার স্ত্রী হামিদা বেগম স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মিদের জানিয়েছেন, তার নরপশু ছেলে রমজান ঘরে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। পুত্র রমজান তার পরিবার নিয়ে অন্যত্র বসবাস করে।

বুধবার বিকালের দিকে মায়ের কাছে টাকা চাইতে আসে। মা হামিদা টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করে। একপর্যায়ে সে রাগের মাথায় বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। অভিযুক্ত রমজান পেশায় সিএনজি চালক। পিতা দুদু মিয়া প্রবাসে। মা হামিদা বেগম দুই মেয়েকে নিয়ে উক্ত বাড়িতে বসবাস করে আসছিলো।

স্থানীয়রা জানায়, আগুন লাগার খবর পেয়ে পার্শ্ববর্তী জনতা এগিয়ে এসে আগুন নিভানোর জন্য শত চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। টেকনাফ ফায়ার সার্ভিসে কর্মরত সদস্যরাও ঘটনাস্থলে সময়মত পৌছতে পারেনি। আগুনের লেলিহান শিখা বসতবাড়ীর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে সল্প সময়ের মধ্যে বাড়ীটি আগুনে পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়।

এ বিষয়ে অত্র ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রেজাউল করিম রেজুর কাছে জানান, বসতবাড়ীতে আগুন লাগার খবর শুনেছি। আমি এলাকার বাহিরে, পুড়ে যাওয়া বসতবাড়ীর ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান ৪ লাখ টাকা হবে বলেও জানান তিনি।

টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ ওসমান গণি বলেন, আগুন লাগার খবর শুনে শাহপরীর দ্বীপ ফাঁড়িতে কর্মরত পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আগুনটি কিভাবে লেগেছে তার সঠিক রহস্য বের করার জন্য পুলিশের গোয়েন্দা নজরদারি চলমান রয়েছে। পাশাপাশি ভুক্তভোগী পরিবার অভিযোগ হাতে পেলে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে জড়িত অপরাধীর বিরুদ্ধে আইনি প্রদক্ষেপ গ্রহন করা হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image