• ঢাকা
  • বুধবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ২১ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

লক্ষ্মীপুর-৩ ও ৪ আসনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করলেন ৩ জন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৯:৫৮ পিএম
লক্ষ্মীপুর-৩ ও ৪ আসনের
মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করলেন ৩ জন

নাজমুল হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর-৩ ও ৪ আসন থেকে ৩জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের ২টি আসন থেকে ৩জন প্রার্থী প্রত্যাহার করেন। এদের মধ্যে জোটগত কারণে লক্ষ্মীপুর-৪ (কমলনগর-রামগতি) আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ফরিদুন্নাহার লাইলী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। এই আসন থেকে মহাজোটের শরিক দলের প্রার্থী হিসেবে জাসদের মোশারফ হোসেন নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করবেন।

লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসন থেকে জাকের পার্টির স্থায়ী কমিটির সদস্য শামছুল করিম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মনীন্দ্র কুমার নাথ মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

লক্ষ্মীপুর জেলার ৪টি আসন থেকে ২৮জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

রোববার (১৭ ডিসেম্বর) বিকেলে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক (ডিসি) সুরাইয়া জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান এমপি আনোয়ার হোসেন খানের সঙ্গে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও লক্ষ্মীপুর জেলা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নিয়াজ মাখমুদ ফারুকী, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মোশারফ হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান পবন ও সাবেক সংসদ সদস্য এম এ গোফরান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

লক্ষ্মীপুর-১ আসনে হাবিবুর রহমান পবন ও মোশারফ হোসেন আপিলের মাধ্যমে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।

লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর) সদরের একাংশ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান এমপি এ্যাডভোকেট নূরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এর সঙ্গে তার স্ত্রী রুবিনা ইয়াছমিন লুবনাসহ ১০জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

লক্ষ্মীপুর-২ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও নোয়াখালী কমিটির সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন আহমেদ মিঠু, তৃণমূল বিএনপির আবদুল্লাহ আল মাসুদ, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টর জহির হোসেন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) আমির হোসেন, মুক্তিজোটের ইমাম উদ্দিন সুমন, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মনসুর রহমান দাদন গাজী, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের মোরশেদ আলম ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের শরীফুল ইসলাম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ফরহাদ মিয়াসহ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান এমপি গোলাম ফারুক পিংকুর সঙ্গে স্বতন্ত্র হিসেবে মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ সাত্তার, জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও লক্ষ্মীপুর জেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাকিব হোসেন, জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ আবদুর রহিম, তৃণমূল বিএনপির নাঈম হাসান ও বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির মাহবুবুল করিম টিপু প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

নৌকার প্রার্থী পিংকু গত ৫ নভেম্বরের উপ-নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হোন।

লক্ষ্মীপুর-৪ (কমলনগর-রামগতি) আসনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে প্রথমে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী কে মনোনীত করেন দল। কিন্তু বরাবরই আসনটি মহাজোটের শরিকদের দেয় আওয়ামী লীগ। বর্তমান এমপি বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অবসরপ্রাপ্ত) আব্দুল মান্নানও আওয়ামী লীগের শরিক দলের হয়ে নৌকা নিয়ে ভোট করে ২০১৮ সালে নির্বাচিত হোন। 

এবার প্রথমে দলীয় প্রার্থী দিলেও বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) রাতে শরিক দলের একান্ত বৈঠকে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ ইনু) সহ-সভাপতি মোশারফ হোসেনের নাম ঘোষণা করা হয়।

রোববার (১৭ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশন সচিব বরাবর আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে এ আসনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মোশারফ হোসেনের বিষয়ে নিশ্চিত করা হয়। দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী লাইলী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন।

নৌকার প্রার্থী মোশারফের সঙ্গে এ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সাবেক সংসদ সদস্য ও লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আবদুল্লাহ ও তার স্ত্রী মাহমুদা বেগমসহ ৪জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।
 
অন্যরা হলেন- বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মোহাম্মদ ছোলায়মান, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ইস্কান্দার মির্জা শামীম। 

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image