• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

জামালপুরে প্রত্যাগত অভিবাসী কর্মীদের পুনঃএকত্রীকরণ বিষয়ক সেমিনার


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ০৩ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১:২৮ পিএম
প্রত্যাগত অভিবাসী কর্মীদের
পুনঃএকত্রীকরণ বিষয়ক সেমিনার

জামালপুর প্রতিনিধি : 'প্রত্যাগত অভিবাসী, ফিরে এলেও পাশে আছি' এ শ্লোগান সামনে রেখে জামালপুরে প্রত্যাগত অভিবাসীদের পুনঃএকত্রীকরণে রেইস প্রকল্পের ভূমিকা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. শফিউর রহমান।

সোমবার (৩ জুন) সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অনলাইনে যুক্ত থেকে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রেইস প্রকল্পের পরিচালক ও যুগ্মসচিব সৌরেন্দ্রনাথ সাহা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আনোয়ার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ মাহবুবুল হাসান তাহেরী। প্রকল্পের ধারণা পত্র উপস্থাপন করেন রেফিউজি এন্ড মাইগ্রেটরি মুভমেন্ট রিসার্চ ইউনিট (রামরু) এর কাউন্সিলর নূর মোহাম্মদ।

সেমিনারে ধারণা পত্র উপস্থাপনের পর মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আতিকুর রহমান ছানা, জেলা প্রণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. ছানোয়ার হোসেন, জামালপুর কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ হারুন আল মামুন, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপক মো. কামরুজ্জামান, জামালপুর অনলাইন জার্নালিস্ট নেটওয়ার্কের সভাপতি জাহাঙ্গীর সেলিম প্রমুখ।

সেমিনারে সরকারি, বেসরকারি প্রতিনিধি, বিদেশ ফেরত অভিবাসী, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার শতাধিক মানুষ অংশ নেন।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রকল্প পরিচালক ও সরকারের যুগ্মসচিব সৌরেন্দ্র নাথ সাহা বলেন প্রত্যাগত অভিবাসীদের শুধুমাত্র ১৩ হাজার টাকা অনুদান দেয়াটাই রেইস প্রকল্পের উদ্দশ্য না। তাদের যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তোলা। তারা যেনো দেশেই সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের সহযোগিতা নিয়ে উদ্যোক্তা হয়ে কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করতে পারে। এছাড়া পুনরায় বিদেশ যেতে চাইলেও রেইস প্রকল্পের মাধ্যমে পদক্ষেপ বা সহায়তা প্রদানের ব্যবস্থা করা হবে। তিনি সেমিনারে উপস্থিত সকলের মতামত ও নির্দেশনার ভিত্তিতে নতুন পরিকল্পনা ও প্রকল্প বাস্তবায়নে কার্যকর ভূমিকা রাখা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

জেলা প্রশাসক মো. শফিউর রহমান বলেন, দালালের মাধ্যমে বিদেশ না গিয়ে সরকারের বিভিন্ন বৈধ এজেন্সি আছে। এসব এজেন্সির মাধ্যমে বিদেশ গেলে পরবর্তীতে প্রবাসে কোন জটিলতা বা বিদেশ থেকে ফেরত আসার মতো পরিস্থিতি তৈরি হলেও সরকার ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করে থাকে। প্রত্যাগত অভিবাসীদের পুনর্বাসনে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের সাথে সংযোগ স্থাপনের ব্যবস্থা করার সুযোগ আছে। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে প্রত্যাগতরা নানা উদ্যোগ নিয়ে স্বাবলম্বী হতে পারে।

সেমিনারে মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা গঠনমূলক আলোচনার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ মতামত প্রদান করেন। সেমিনারটির আয়োজন করেন জামালপুর জেলা প্রশাসন ও ওয়েলফেয়ার সেন্টার, ময়মনসিংহ।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image