• ঢাকা
  • সোমবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২০ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

কঠোর গোপনীয়তায় জো বাইডেনের কিয়েভ সফর


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ২০ ফেরুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৯:১২ পিএম
মার্কিন কর্মকর্তারা অস্বীকার করেছিলেন
জেলেনস্কি ও জো বাইডেন

নিউজ ডেস্ক:  ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়া যুদ্ধ শুরু করার প্রথম বার্ষিকীর আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আকস্মিকভাবে কঠোর গোপনীয়তার মধ্যে কিয়েভ সফর করেছেন। তিনি ও জেলেনস্কি রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নিহত ইউক্রেনীয় সেনাদের স্মরণে তৈরি স্মৃতিস্তম্ভ পরিদর্শন করেন।

টেলিভিশনে দুই নেতা যৌথভাবে এক সংবাদ সম্মেলনে  প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, 'গত বছর ইউক্রেনের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধ শুরুর সময় প্রেসিডেন্ট পুতিন মনে করেছিলেন ইউক্রেন খুবই দুর্বল এবং পশ্চিমা দেশগুলো বিভক্ত। কিন্তু পুতিন যদি মনে মনে করেন তিনি ইউক্রেন ও তার পশ্চিমা মিত্রদের বিরুদ্ধে বিজয়ী হবেন, তাহলে তিনি বিরাট ভুল করেছেন।'

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়া যুদ্ধ শুরু করার প্রথম বার্ষিকীর আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আকস্মিকভাবে কঠোর গোপনীয়তার মধ্যে কিয়েভ সফর করেছেন।
ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়া যুদ্ধ শুরু করার প্রথম বার্ষিকীর আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আকস্মিকভাবে কঠোর গোপনীয়তার মধ্যে কিয়েভ সফর করেছেন।
প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি মার্কিন প্রেসিডেন্টের সফরকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, 'ইউক্রেনীয়দের জন্য এরকম সমর্থন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটিকে যুক্তরাষ্ট্র-ইউক্রেন সম্পর্কের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সফর বলে বর্ণনা করেন।'

নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট বাইডেন পোল্যান্ড থেকে ট্রেনে সীমান্ত পেরিয়ে ইউক্রেন সফরে যান। নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগের কারণে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের এই সফর বেশ গোপন রাখা হয়।

বিভিন্ন খবরে জানা যাচ্ছে, শনিবার ১৮ ফেব্রুয়ারি রাতে প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও তার স্ত্রী জিল এক রেস্টুরেন্টে রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলেন। এরপর কোন পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই প্রেসিডেন্ট বাইডেন ওয়াশিংটন ত্যাগ করেন। পূর্ব ইউরোপ সফরের সময় প্রেসিডেন্ট বাইডেন ইউক্রেনও সফর করতে পারেন, এমন কথা এর আগে মার্কিন কর্মকর্তারা অস্বীকার করেছিলেন।

নিউইয়র্ক টাইমস লিখেছে, 'হোয়াইট হাউজ রবিবার রাতে প্রেসিডেন্টের যে কর্মসূচী প্রকাশ করে, তাতে দেখা যায় সোমবার ২০ ফেব্রুয়ারি প্রেসিডেন্ট ওয়াশিংটনে থাকবেন, এরপর তিনি সন্ধ্যায় ওয়ারশ’র উদ্দেশে রওনা দেবেন। 

ঢাকানিউজ২৪.কম /

আরো পড়ুন

banner image
banner image