• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২৩ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

সীমান্তে বিকট শব্দ কাঁপছে টেকনাফ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০২:৫৪ পিএম
বিকট শব্দ কাঁপছে
টেকনাফ সীমান্ত

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি : চলমান সংঘাতের কারণে মায়ানমার ওপারে মর্টারশেল ও বোমার শব্দে কাঁপছে টেকনাফ উপজেলার সীমান্তে। আতঙ্কে টেকনাফ উপজেলার পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দারা।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) ভোর ৫ টা থেকে মায়ানমার ওপারে থেমে থেমে বিকট মর্টারশেলের শব্দে কাপঁছে টেকনাফ উপজেলার সীমান্ত এলাকার বাড়ি-ঘর।

জানা যায়, নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষায় মায়ানমার সরকারী বাহিনীর সাথে আরাকান আর্মিদের সঙ্গে চলছে সংঘর্ষ। সংঘর্ষের প্রভাব টেকনাফ উপজেলার সেন্টমার্টিন, হোয়াইক্যং, হ্নীলা, পৌরসভা, সাবরাং, নয়াপাড়া, শাহপরীরদ্বীপ সীমান্ত এলাকা সহ পার্শ্ববর্তী গ্রামে এসে লাগছে।

টেকনাফ সদর ইউনিয়নের চকবাজার এলাকার বাসিন্দার মোঃ কালা বলেন, যেভাবে হঠাৎ মায়ানমার ওপারে থেমে থেমে বোমার বিকট শব্দে কাঁপছি আমার বাড়ি। এরকম শব্দ কোনদিন শুনি নাই। মনে হয়েছি আমার বাড়ি ভেঙ্গে পড়ে যাচ্ছে। আতঙ্কে ঘুমাইতে পাচ্ছি না।

টেকনাফ সদর নতুন পল্লান পাড়া এলাবার বাসিন্দার গুরা মিয়া বলেন, মায়ানমারে দুই গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে শুনেছি। কোনদিন আমার বাড়িতে বিকট শব্দে আওয়াজ পাইনি। সকালে এমন বিকট শব্দ হয়েছে বাড়ির জানালার কাচের শব্দে ঘুম ভাঙলো।

টেকনাফ পৌরসভা কায়ুকখালী এলাকার বাসিন্দার আবুল বলেন, সকাল ৭ টা ২০ মিনিটের সময় কিসের শব্দ বুঝতে পারি নাই। পুরো বিল্ডিং কেঁপে উঠছে। আল্লাহ সবাইকে রক্ষা করুক বলে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন।

হ্নীলা ইউনিয়ন ৩নং ওয়াব্রাং এলাকার বাসিন্দার মোহাম্মদ কামাল জানান, ফজরের নামাজের পর থেকে মায়ানমার ওপারে যেভাবে মর্টারশেলের শব্দ হয়েছিল। মনে করে ছিলাম ভূমিকম্পে বাড়ি ঘর ভেঙ্গে যাচ্ছে। বজ্রপাতের মত বিকাশ শব্দ সেন্টমার্টিন দ্বীপের বাসিন্দা জিয়াউর রহমান বলেন, কোনদিন এভাবে বিকট শব্দ শুনি নাই। সকালে এমনভাবে বিকট শব্দ হয়েছে মনে হয় বিল্ডিং ভেঙ্গে পড়ছে।

শাহপরীরদ্বীপের বাসিন্দা মোঃ শাহীন আলম বলেন, মায়ানমার ওপারে এমন বিকট শব্দ হয়েছে পুরো দ্বীপ কাঁপছে। বিকট শব্দে ঘুম শেষ এমন মন্তব্য করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image