• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২৩ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

মানিকগঞ্জে সন্তানকে আগুন পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০২:৪৭ পিএম
মানিকগঞ্জে সন্তানকে আগুন পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা
আগুন

সাকিব আহমেদ (মানিকগঞ্জ) : মানিকগঞ্জে হত্যার উদ্দেশে নিজ সন্তানের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মহিন (৪০) নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ১৫ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) সকাল ৯টায় মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার ভাড়ারিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে জানা যায়, অভিযুক্ত মহিনের স্ত্রী গত ১ বছর পূর্বে সংসারে অভাব অনটনের কারণে কাজের সন্ধানে সৌদি আরব গেলে সেখানে অন্য এক ব্যাক্তির সাথে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন। এর পর থেকে স্ত্রী সংসারে টাকা দেওয়া বন্ধ করে দিলে একমাত্র পুত্র ভাড়ারিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র  তুহিন (৯) নিয়ে ভাড়ারিয়া গ্রামে বসবাস করতে থাকেন মহিন।

১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ (বৃহস্পতিবার) সকাল আনুমানিক ৯টায় স্কুলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে প্রস্তুতি নেয়ার সময় তুহিনের গায়ে পেট্রোল ঢেলে গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয় মহিন। সারা শরীরে আগুন লেগে গেলে শিশু তুহিন দৌড়ে প্রতেবেশী  লিপি আক্তারের বাড়ির উঠানে গেলে লিপি আক্তার নলকূপের পানি দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। 

দীর্ঘক্ষন চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হলেও তুহিনের মুখমন্ডলসহ শরীরের বেশিরভাগ অংশ পুড়ে গেছে বলে জানা যায়। স্থানীয়রা মহিনকে আটক করে মানিকগঞ্জ সদর থানায় বিষয়টি অবগত করেন। আটকের সময় তুহিনের কাছ থেকে একটি চাপাতি উদ্ধার করে এলাকাবাসী। পরবর্তীতে স্থানীয়দের সহায়তায় শিশু তুহিনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসার উদেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ বিষয়ে লিপি আক্তার জানান, সারা শরীরে আগুন জ্বলতে থাকা অবস্থায় তুহিন আমার বাড়ীর উঠানে আসলে আমি তাকে পানি ঢেলে আগুন নেভাতে সহায়তা করায় মহিন আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। বিভিন্ন প্রকার গালিগালাজ ও  আমার  বাড়িঘর পুড়িয়ে দেওয়াসহ প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে। 

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, মহিন মাঝে মধ্যেই সন্তানকে বেধড়ক মারধর করতো। কেউ এগিয়ে গেলে তাদের উপর চড়াও হতো বলে জানা যায়। দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন মাদক সেবন করতো বলে জানা যায়। তার ভয়ে প্রতিবেশীসহ এলাকার কেও কথা বলার সাহস পর্যন্ত পেত না। আজ নিজ সন্তানে উপর পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। মহিনের উপযুক্ত শাস্তির দাবী জানান এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ সদর থানা অফিসার ইনচার্জের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image