• ঢাকা
  • বুধবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ২১ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

নৌ-পুলিশের নজরদারির কারণে পদ্মা নদীতে বন্ধ হলো চাঁদাবাজি ও বালু উত্তোলন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ০৬ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:৩৪ পিএম
নৌ-পুলিশের নজরদারির কারণে পদ্মা নদীতে বন্ধ হলো চাঁদাবাজি ও বালু উত্তোলন
নৌ-পুলিশ

নাজমুল হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক : শরীয়তপুর জেলার মাঝিরঘাট নৌ-পুলিশের কঠোর নজরদারিতে বন্ধ হয় রাতের আধারে পদ্মা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও নৌযান থেকে চাঁদাবাজি।

জাজিরা মাঝিরঘাট নৌ-ফাঁড়ির নজরদারি ও চাঁদপুর নৌ-পুলিশ সুপারের কঠোর নির্দেশে নৌ-পুলিশের টহল জোরদার করার কারণে পদ্মা নদীতে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন ও চাঁদাবাজি বন্ধ রয়েছে।

এছাড়া পদ্মানদীতে অবৈধ ড্রেজার বন্ধ হওয়ায় পদ্মা সেতুর ১৪ নং পিলার থেকে ২৪ নং পিলার পর্যন্ত বিশাল এলাকায় নতুন করে চর জেগেছে উঠেছে।

স্থানীয় চরের বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা হলে জানা যায়, এভাবে আরও কিছু দিন যদি অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ থাকে তাহলে আরও বিশাল এলাকা জুড়ে চর পরার সম্ভাবনা আছে।

মাঝির ঘাট নৌপুলিশ ফাঁড়ির এস আই মমিন বলেন, আমাদের এসপির নির্দেশে এই এলাকার চাঁদাবাজি ও বালু উত্তোলন বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছি আমরা।

মাঝির ঘাট নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জসিম উদ্দিন বলেন, আমি এখানে নতুন যোগদান করেছি।

যোগদান দান করেই চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এসপি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান স্যারের নির্দেশনায় প্রথম দিন থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও চাঁদাবাজির ব্যাপারে জিরো টলারেন্স। ভবিষ্যতে ও আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে মন্তব্য করেন।

চাঁদপুর অঞ্চলের নৌ-পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন, নদীপথে কোন চাঁদাবাজি থাকবে না। নদী থেকে বালু উত্তোলন কঠোর নজরদারি ফলে শূন্যের কোঠায় নেমে এসেছে। কেউ যদি নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে কিংবা নৌযান থেকে চাঁদাবাজি করে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে তার বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অন্যায় করে লজ্জিত না হওয়াটা আরেক অন্যায়। 

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image