• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

শেখ হাসিনার সঙ্গে সংলাপে যাবে না বিএনপি: ফখরুল


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:১৬ পিএম
সংলাপ, বিএনপি
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

নিজস্ব প্রতিবেদক : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সংলাপে দেওয়া ওয়াদা রাখা হয়নি উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা তো সংলাপের কথা বলিনি। আমরা শেখ হাসিনা ও তার সরকারের সঙ্গে সংলাপ করবো না। কারণ তিনি কথা দিয়ে কথা রাখেন না।

তিনি বলেন, পদত্যাগ করে নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করে নির্বাচন দিন। তাতে যারা নির্বাচিত হবে, মাথা পেতে মেনে নেব।

মঙ্গলবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

২০১৮ সালের নির্বাচনের আগে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায় বসা প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ওই সংলাপে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, আর কোনো গ্রেপ্তার (বিএনপির কর্মীদের) হবে না, পুলিশি হয়রানি হবে না, গায়েবি মামলা হবে না। কিন্তু এর তিনদিন পর থেকে আমাদের প্রার্থীদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, নির্যাতন করা হয়েছে। নেতা-কর্মীরা ঘরে, রাস্তায়ও থাকতে পারেনি।

তিনি আরো বলেন, তারপর কী করে আশা করেন, প্রধানমন্ত্রী সরকারে থাকবেন আর রাজনৈতিক দলগুলো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে? আজকে শুধু বিএনপি নয়, সব রাজনৈতিক দল বলছে এই সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না। এমনকি সিপিবিও বলেছে, এই সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, গতকাল প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কোনো চাপ নেই। এখানেই বোঝা যায় এই দেশের প্রতি, মানুষের প্রতি তার কোনো দায়িত্ব নেই। মানুষের ভবিষ্যৎ নিয়ে এই রাষ্ট্রকে সত্যিকার অর্থে কার্যকর চিন্তা তার নেই।

ফখরুল আরও বলেন, গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হবে। দুর্নীতিতে আকণ্ঠ নিমজ্জিত বর্তমান অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকারকে দুর্বার গণআন্দোলনের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করে একটি নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পরিচালনায় অবাধ ও গ্রহণযোগ্য সাধারণ নির্বাচনের মাধ্যমে প্রকৃত অর্থে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সেজন্য দলমত জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে প্রত্যেককে চলমান গণআন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ার উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

যমুনা নদীকে সংকুচিত করার যে প্রকল্প নেওয়া হয়েছে, সেটিকে আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, হাজার বছর ধরে বহমান একটি নদীকে ছোট করার যে প্রকল্প, সেটি মারাত্মক আত্মঘাতী। এর ফলে পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়বে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এম আর

আরো পড়ুন

banner image
banner image