• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২০ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

শেষ হলো মম মোস্তফার একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ২৬ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১:৪৬ পিএম
মম মোস্তফার, একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী, শিল্পকলা একাডেমি
আলোকচিত্র

শেষ হল শিল্পকলা একাডেমিতে মম মোস্তফার একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী

গত রবিবার (২৬ মে) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা গ্যালারী- শেষ হল দেশের অন্যতম নারী আলোকচিত্রী মম মোস্তফারমেলোডিস অব মমশিরোনামে ৩দিন ব্যাপী একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী

সকল শ্রেণীর দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত এই প্রদর্শনীটি শুক্রবার (২৪ মে) বিকেল ৪টায় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম এমপি এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রদর্শনীতে যোগ দেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহের মুহাম্মদ জাবের, টুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি মীর রেজাউল আলম, বিপিএম (বার) সহ প্রমুখ।

গত দিনে কয়েক শত শিল্প অনুরাগী, ফটোগ্রাফীর শিক্ষার্থী প্রদর্শনীতে আলোকচিত্রগুলো উপভোগ করেন। এই প্রদর্শনীতে বিভিন্ন সময়ে উপস্থিত ছিলেন দেশের বরেণ্য ব্যক্তিগণ, এর মধ্যে রয়েছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র পরিচালক আশরাফ শিশির, বিশিষ্ট আলোকচিত্রী হাসান চন্দন, সাহাদাত পারভেজ, দীন মোহাম্মদ শিবলী, মীর সামছুল আলম বাবু, জান্নাতুল মাওয়া,নাফিস আহমেদ নদভী, ইউসুফ তুষার, কে এম জাহাঙ্গীর আলম, ফখরুল ইসলাম, আনসার উদ্দিন পাঠান, নুরুন্নাহার নাফিসা, মৌসুমী সিরাজ, সিরাজ,ইমন রেজাসহ আরো অনেকে।

উল্লেখ্য, মম মোস্তফা দেশের একজন পেশাদার তরুণ আলোকচিত্রশিল্পী। ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে দেশীয় আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে তার বহু আলোকচিত্র। অর্জন করেছেন জাতীয় আন্তর্জাতিক সম্মাননা পুরস্কার। এবার তার আলোচিত বাছাইকৃত ছবিগুলো নিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী।

মম মোস্তফা প্রদর্শনী সম্পর্কে জানান, ”একজন আলোকচিত্রীর জীবনের বড় একটি প্রেজেন্টেশন হতে পারে তার একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী। আলোকচিত্র নিয়ে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা লাভ করে প্রায়  ১৫ বছর ধরে দেশে দেশের বাইরে প্রচুর ছবি তুলেছি। বিভিন্ন প্রদর্শনীতে অনেক ছবি প্রদর্শিত হয়েছে। প্রতিটি ছবির সঙ্গে জড়িয়ে আছে নানা অনুভূতি, নানা গল্প। এদেশে নিজেকে একজন পেশাদার নারী আলোকচিত্রী হিসাবে প্রতিষ্ঠা করা এমনিতেই অনেক চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার, তার চেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ সলো একজিবিশন। যতসম্ভব, এটাই দেশে কোন পেশাদার নারী আলোকচিত্রীর প্রথম একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী। আমি আমার দায়বদ্ধতা থেকেই শিল্প অনুরাগী, ফটোগ্রাফীর শিক্ষার্থী এবং পেশায় আসা নবীনদের সাথে আমার ফটোগ্রাফি, চ্যালেঞ্জ অভিজ্ঞতা শেয়ার করে নিতে চাই এভাবেই, বিশেষ করে সেইসব নারীদের জন্য- যারা আলোকচিত্রী হতে চায়।

এই প্রদর্শনী হতে বিক্রয়লব্ধ অর্থের একটি অংশশিশুদের জন্য আমরানামে একটি অন্ধকারপল্লীতে জন্ম নেওয়া শিশুদের উন্নয়নে কাজ করছে, এমন একটি সংস্থায় সহযোগিতা হিসাবে প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন আলোকচিত্রী নিজেই। প্রদর্শনীর আয়োজন সহযোগী হিসেবে রয়েছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি এবং বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এস

আরো পড়ুন

banner image
banner image