• ঢাকা
  • বুধবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২৯ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

আখাউড়ার আলোচিত বিএনপি নেতা জুরু এখন কারাগারে 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:৪৩ পিএম
আখাউড়ার আলোচিত বিএনপি নেতা জুরু
কারাগার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : এলাকায় হামলা, মামলা, ভাংচুর, ভূমিদস্যুতাসহ নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত বিএনপি নেতা জহিরুল হক জুরু (৫০) এখন কারাগারে। গত বৃহস্পতিবার ১৯ এপ্রিল জিআর ৯৩/২৩ একটি মামলার হাজিরা দিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগে তিনি এই মামলায় প্রায় এক বছর পলাতক ছিলেন।

জহিরুল হক জুরু ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার ধরখার ইউপিস্থ ছতুরা শরীফ গ্রামের মৃত আবদুল কাদিরের ছেলে এবং ধরখার ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক।

মামলার বাদী একই ইউনিয়নের তন্তর গ্রামের মৃত শামসুল হকের ছেলে এইচ এম শাহীন আলম ভূঁইয়ার এজাহার থেকে জানা যায়, দলগত কারণে জুরুসহ অন্যান্য আসামীদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই বাদীর সামাজিক মতবিরোধ চলে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১০ এপ্রিল ২০২৩ ইং সালে বাদীর ছোট ভাই রহমত উল্লাহকে(২৬) পথ আটকিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে গুরুতরভাবে আহত করেন বিবাদীরা। এসময় স্বর্ণালংকারসহ মোট ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকার মূল্যের জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেওয়া হয়। 
এ বিষয়ে মামলার বাদী এইচ এম শাহীন আলম ভূঁইয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, জহিরুল হক জুরু একজন কুখ্যাত সন্ত্রাসী, মামলাবাজ এবং ভূমিদস্যু। এলাকায় প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন মানুষের জায়গা জমি দখল করাই তার পেশা। আমি আদালতের মাধ্যমে তার সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী করছি।

সরেজমিনে ও এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জহিরুল হক জুরু একজন ইতালি প্রবাসী। তবে তিনি ইতালির চেয়ে দেশেই বেশি থাকেন এবং জায়গা জমি বেচাকেনার ব্যবসা করেন। তবে এলাকার যত ঝামেলাপূর্ণ জায়গা আছে সে সব জায়গা তিনি ক্রয় করে থাকেন এবং তা নানা ধরনের হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে সেগুলো দখলে নেন। আর্থিকভাবে সচ্ছল ও বংশগত দাপুটে হওয়ায় সাধারণ মানুষ তার ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পায়না।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জহিরুল হক জুরু এই মামলা ছাড়াও আরো বেশ কয়েকটি মামলার এজারভুক্ত আসামী। সেগুলো হল, অবৈধ ভাবে জাহানারা হকের বাড়ি দখল করতে গিয়ে মারামারি করে ননজিয়ার ২৭/২৩ মামলা, সিআর ৫৬৬/২৩ চেক জালিয়াতি মামলা, দেওয়ানী ১৯৮/১৯ জায়গা দখলের মামলা। এছাড়াও ২০২৩ সালের ২৯ আগস্ট এই বিএনপি নেতার বাড়ি থেকে চুরি হওয়া তীর কোম্পানির ৫ হাজার লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার করেন ধরখার পুলিশ ফাঁড়ির সহযোগিতায় নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জ থানা পুলিশ।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image