• ঢাকা
  • সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৫ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

সিরাজগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত ১৭


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ০৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:৫২ পিএম
জমি নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত ১৭
সিরাজগঞ্জ

মোঃ মাসুদ রানা, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ছোনগাছায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছে। রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে সদর উপজেলার ছোনগাছা ইউনিয়নের পূর্ব গুপিরপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে ১৩ জনকে সিরাজগঞ্জের ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত চার জনকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতাল ও বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতেরা হলেন- বাবুল শেখ, হেলাল হোসেন, বেলাল হোসেন, রফিকুল ইসলাম, ময়নাল হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, আব্দুর রউফ, ইসলাম হোসেন, আমিনা খাতুন, আনোয়ারা খাতুন, আনু খাতুন, রহিমা বেগম ও আব্দুল মান্নান। অন্য চার জনের নাম জানা যায়নি।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতেরা জানান, গুপিরপাড়া গ্রামে আব্দুর রাজ্জাক মাস্টারের পরিবারের সঙ্গে একই গ্রামের ফসিয়ার রহমানের পরিবারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। গত ২৭ আগস্ট ফসিয়ার রহমানের জমির একটি শ্যালো মেশিন আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা চলে আসছিল। রোববার রাতে আব্দুর রাজ্জাক মাস্টারের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ফসিয়ার রহমানের লোকজনের ওপর হামলা করে। এতে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। হামলায় চার নারীসহ অন্তত ১৬ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে দেয় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ফসিয়ার রহমান বলেন, রাতে হেলাল হোসেন ছোনগাছা বাজার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। তিনি পূর্ব গুপিরপাড়া রাজ্জাক মাস্টারের বাড়ির কাছে পৌঁছালে রাজ্জাক মাস্টারের ছেলে রুহুল আমিন ভাড়াটে লোকজন নিয়ে এসে হেলালের ওপর হামলা করে। হামলার খবর পেয়ে আমাদের পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে গেলে তারা দেশীয় ধারালো অস্ত্র, লাঠিসোটা নিয়ে আমাদের ওপর হামলা করে। এতে চার নারীসহ ১৭ জন আহত হয়। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে রাজ্জাক মাস্টারের ছেলে রুহুল আমীন এই হামলার কথা অস্বীকার করেন।

সিরাজগঞ্জের ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডাক্তার রোকন উদ্দিন বলেন, আহতদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। আহত অবস্থায় চার নারীসহ ১৩ জন হাসপাতালে এসেছেন। তাদের চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত হেলাল হোসেন, বেলাল হোসেন, আব্দুল মান্নান ও রহিমা বেগমকে স্থানান্তর করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, দুই পক্ষের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। রাতে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image