• ঢাকা
  • শনিবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২০ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

হিলি স্থলবন্দরে পাথর বিক্রয়ে বিপাকে আমদানিকারক


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ০১ মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৭:০৫ পিএম
হিলি স্থলবন্দরে বিপাকে আমদানিকারক
পাথর বিক্রয়

রেজওয়ান আলী, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুর জেলা অন্তর্গত হিলি স্থলবন্দরে আমদানিকৃত পাথর ব্যবসায়ীরা বিপাকে পড়ার অভিযোগ উঠেছে। ক্রেতা না থাকায় এমন বিপাকে পড়েছেন পাথর আমদানিকারক গণ।

১লা মার্চ বুধবার হিলি স্থল বন্দরে ঘুরে দেখা যায়,বন্দরের ভেতরে বিক্রয়ের অপেক্ষায় পড়ে আছে কয়েক হাজার মেট্রিক টন পাথর। দাম কমিয়ে দেওয়ার পরেও ক্রেতার অভাব। এবিষয়ে ব্যবসায়ীরা জানান,আগে প্রতিদিন ভারত থেকে ৮০ থেকে ১০০ ট্রাক পাথর আমদানি হত। বিক্রি কমে যাওয়ায় এখন  আমদানি হচ্ছে ২০ থেকে ৩০ ট্রাক পাথর।  

এ বিষয়ে হিলি স্থলবন্দরের পাথর আমদানিকারক মো.সাকোয়াত হোসেন বলেন,এই বন্দর দিয়ে ভারত থেকে বিভিন্ন পণ্যর পাশাপাশি আমদানি হয়ে থাকে পাথর।
দেশের মেগা প্রকল্প থেকে শুরু করে সরকারি বেসরকারি কাজ যেমন রাস্তা ঘাট,কালর্ভাট,বিল্ডিংসহ বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত পাথর এই বন্দর দিয়ে আসেন। বর্তমানে ক্রেতাসংকট ও এলসি জটিলতায় থমকে আছে পাথর বিক্রয়। বন্দরে পড়ে আছে কয়েক হাজার মেট্রিক টন পাথর। এ বিষয়ে পাথর আমদানিকারক আমিনুল ইসলাম পলাশ বলেন,পাথর বিক্রি না হওয়ায় আমদানি কমিয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। ১মাস আগে ৩-৪ সাইজের পাথর বিক্রি হয়েছে ৪ হাজার ৪০০ থেকে ৪ হাজার ৫০০ টাকা মেট্রিক টন। এখন বিক্রি হচ্ছে ৩ হাজার ৯০০ টাকা থেকে ৪ হাজার টাকা মেট্রিক টন।
তারপরও ক্রেতা নেই। স্বল্প পরিসরে চলছে পাথর বিক্রি। এতে বন্দরের ভেতরে জায়গা স্বল্পতা দেখা দিয়েছে। এরফলে অন্য পণ্য খালাস করতে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের। হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি মো.হারুন-উর-রশিদ প্রতিবেদক কে জানান,দেশের কিছু কিছু মেগাপ্রকল্প বন্ধ থাকায় হিলিতে পাথর বিক্রি অনেকটাই কমেছে। আবার অনেক আমদানিকারক নগদ টাকায় পাথর আমদানি করে বাকিতে বিক্রি করতে হয়। তারাও সময়মতো টাকা পাচ্ছেন না। 

এছাড়া,ডলার সংকটের কারণে এলসিতে নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। এরপরও কোনো কোনো আমদানিকারক আগের এলসির পাথর আমদানি করে বন্দরে মজুদ করে রেখেছেন। প্রতিটনে ৪০০ থেকে ৫০০ দাম কমিয়ে দিয়েও ক্রেতা মিলছে না। এমন চললে অনেক লোকসান গুনতে হবে বলে জানান আমদানি কারক গণ।
এ বিষয়ে পানামা হিলি পোর্ট লিংক লিমিডেটের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক বলেন,হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পাথর আমদানি অব্যাহত আছে। তবে আগের চেয়ে অনেক কমেছে। একমাস আগেও যেখানে প্রতিদিন ৮০ থেকে ১০০ ট্রাক পাথর আমদানি হতো আর এখনতা ২০ থেকে ৩০ ট্রাক আমদানি হচ্ছে।

উক্ত আমদানি কৃত পাথরগুলো যথাযথ নিয়মে বিক্রয়ের সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করার আবেদন জানিয়েছেন পাথর আমদানিকারক গণ।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image