• ঢাকা
  • শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২১ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

জাতীয় পর্যায়ে রাইট টু গ্রো প্রকল্পের সূচনা অনুষ্ঠান


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ২৮ ফেরুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:৫৭ পিএম
আরটুজি
অনুষ্ঠানের আয়োজকরা

নিউজ ডেস্ক: ‘প্রতিটি শিশু তার পরিপূর্ণ সম্ভাবনায় পৌঁছাতে সক্ষম’ - এই লক্ষ্যে অবদান রাখতে রাইট টু গ্রো (আরটুজি) কনসোর্শিয়াম প্রকল্প ২০২৫ সাল পর্যন্ত কাজ করবে বাংলাদেশসহ আরো পাঁচটি আফ্রিকান দেশ (বুরকিনা ফাসো,ইথিওপিয়া, মালি, সাউথ সুদান ও উগান্ডা)।

 ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখে ঢাকার ওয়েস্টিন হোটেল বলরুমে আরটুজি প্রকল্প  জাতীয় পর্যায়ে এই অনুষ্ঠান আয়োজন করে। কিংডম অফ দ্য নেদারল্যান্ডে এর অর্থায়নে আরটুজি বাংলাদেশ কনসোর্শিয়াম প্রকল্পে ম্যাক্স ফাউন্ডেশন (কান্ট্রি লিডএজেন্সি), ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ, সেভ দ্য চিলড্রেন, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট, অ্যাকশন এগেইনস্ট হাঙ্গার (এসিএফ) এবং সিইজিএএ-এইচএলপিএফ এই ছয়টিপার্টনার এনজিও পটুয়াখালী, সাতক্ষীরা, খুলনা এবং বরগুনা জেলায় কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

সূচনা অনুষ্ঠানে মাননীয় সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান এবং প্রাক্তন স্বাস্থ্য মন্ত্রী প্রফেসর ড. এ এফ এম রুহুল হক প্রধান অতিথি হিসাবে অংশগ্রহন করেন। এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর, ডা. মোঃ নাসির উদ্দিন মাহমুদ, ডিরেক্টর - ইন্সটিটিউট অফ পাবলিক হেল্ধসঢ়;থ নিউট্রিশন (আইপিএইচএন), ডা. জুবাইদা নাসরিন, ডিরেক্টর জেনারেল (ইনচার্জ)-বাংলাদেশ ন্যাশনাল নিউট্রিশন কাউন্সিল (বিএনএনসি), এবং মি. ফোকার্ট জি জে ডি জেগার, ফার্স্ট সেক্রেটারি, ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট এন্ড ফুড সিকিউরিটি, এ্যামব্যাসী অব কিংডম অব দ্য নেদারল্যান্ডস্ধসঢ়;, বাংলাদেশ।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল ডিরেক্টর সুরেশ বার্টলেট সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন এবং রিয়াদ ইমাম মাহমুদ, কান্ট্রি ডিরেক্টর-ম্যাক্স ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ ও নেপাল,চেয়ারপারসন-আরটুজি কান্ট্রি স্টিয়ারিং কমিটি, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে প্রকল্পের যৌক্তিকতা তুলে ধরেন।

রাইট টু গ্রো প্রকল্পটি সিভিল সোসাইটি অর্গানাইজেশন এর ক্ষমতায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশে বিভিন্ন স্তরে পুষ্টি ও ওয়াশ বিষয়ে পরিকল্পনা, বাজেট, বাস্তবায়ন এবং জবাবদিহিতা উন্নয়ন করার উপর কাজ করছে যাতে সিভিল সোসাইটি অর্গানাইজেশন/কমিউনিটি ভিত্তিক গ্রুপগুলো তাদের চাহিদা উপস্থাপন করতে,স্থানীয় সরকারী প্রতিষ্ঠানসহ স্থানীয় সরকারের দপ্তরগুলো থেকে সরবরাহ করা পুষ্টি, ওয়াস ও মাতৃস্বাস্থ্য পরিসেবাগুলিতে প্রবেশাধিকার পেতে পারে এবং স্থানীয় সরকারের দপ্তরগুলোতে এতদসংক্রান্ত বাজেট বৃদ্ধির জন্য এ্যাডভোকেসী করতে পারে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

নারী ও শিশু বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image