• ঢাকা
  • শনিবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ০২ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

আমেরিকার ভেটোতে গাজায় জাতিসংঘের যুদ্ধবিরতি প্রস্তাব পাস হয়নি


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৮:২৫ এএম
ইউএন
জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক, ফাইল ছবি

নিউজ ডেস্ক:  জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস জাতিসংঘ সনদের ৯৯ ধারা ব্যবহার করে অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির জন্য জরুরি নিরাপত্তা পরিষদের সভা আহ্বান করেছেন। তিনি জিম্মিদের মুক্তির আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, "হামাসের দ্বারা সংঘটিত বর্বরতার পুনরাবৃত্তি হয়নি।" ফিলিস্তিনি জনগণের সম্মিলিত শাস্তিকে আমলে নিন।"

ইসরাইল-গাজা যুদ্ধের পর দুই মাস পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত যুদ্ধবিরতি থামার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। খবরে বলা হয়েছে, ইসরায়েলি হামলায় গত ২৪ ঘণ্টায় গাজায় ৩০০ জন নিহত হয়েছে। 

এদিকে, গাজায় ক্রমাগত যুদ্ধবিরতির (গাজা যুদ্ধবিরতি জাতিসংঘের রেজোলিউশন) আহ্বান চলছে। শুক্রবার যুদ্ধবিরতির জন্য জাতিসংঘের অনুরূপ প্রচেষ্টা বন্ধ করে দিয়েছে আমেরিকা। আমেরিকার কারণে জাতিসংঘের যুদ্ধবিরতি প্রস্তাব পাস করা যায়নি। আমেরিকা এই প্রস্তাবে ভেটো দেয়।

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস জাতিসংঘ সনদের ৯৯ অনুচ্ছেদ ব্যবহার করে অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির জন্য জরুরি নিরাপত্তা পরিষদের সভা আহ্বান করেছেন। 

প্রসঙ্গত জাতিসংঘে আর্টিকেল ৯৯ খুব কমই ব্যবহৃত হয়। তিনি জিম্মিদের মুক্তির আবেদন জানিয়ে বলেন, "হামাস যে বর্বরতা করেছে তা কখনোই ফিলিস্তিনি জনগণের সম্মিলিত শাস্তিকে ন্যায়সঙ্গত মনে করে না।" 

এদিকে ইসরায়েলকে সাহায্যকারী আমেরিকা জাতিসংঘের প্রস্তাবে ভেটো দিয়েছে। হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মতে, যুদ্ধে এ পর্যন্ত ফিলিস্তিনি অঞ্চলে ১৭৪৮৭ জন নিহত হয়েছে, যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। 

 অপরদিকে ইসরায়েলি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, হামাস ইসরায়েল আক্রমণ করে এবং ১২০০ জনকে হত্যা করে এবং ২০০ জনেরও বেশি জিম্মি করে। গাজার বিস্তীর্ণ এলাকাকে অনুর্বর ভূমিতে পরিণত করেছে ইসরাইল। 

জাতিসংঘ বলেছে গাজার জনসংখ্যার প্রায় ৮০ শতাংশ বাস্তুচ্যুত হয়েছে এবং মানুষ খাদ্য, পানি, ওষুধ এবং জ্বালানির জন্য বড় সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। ডব্লিউএইচওর মুখপাত্র ক্রিশ্চিয়ান লিন্ডমেয়ার বলেন, "লোকেরা তাপ পেতে বা রান্নার জন্য কিছু জ্বালানি কাঠ পেতে টেলিফোনের খুঁটি কাটতে শুরু করেছে।" এদিকে, ডক্টরস উইদাউট বর্ডারস (এমএসএফ) বলেছে যে নিরাপত্তা পরিষদ "চলমান গণহত্যার সাথে জড়িত।"

ভূমধ্যসাগরে নৌবাহিনীর জাহাজ হামলার ফুটেজ দেখিয়ে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, তারা ২৪ ঘণ্টায় গাজায় ৪৫০টি স্থানকে লক্ষ্যবস্তু করেছে। এদিকে, হামাসের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় উত্তরে গাজা শহরের কাছে ৪০ জন এবং জাবালিয়া ও প্রধান দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খান ইউনিসে কয়েক ডজনের মৃত্যুর খবর দিয়েছে।

গাজার বাসিন্দা রিমাহ মানসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, তিনি তার সমস্ত প্রিয়জনকে হারিয়েছেন। এর সাথে তিনি বলেছেন, "আমাদের কষ্ট দেখে যারা চুপ করে আছে, ঈশ্বর তাদের শাস্তি দিন। 

উল্লেখ্য, যুদ্ধবিরতির সময় ৯১ জন ইসরায়েলি সেনাও প্রাণ হারিয়েছে।
 

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

আরো পড়ুন

banner image
banner image