• ঢাকা
  • বুধবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ২১ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

জরিপে পাকিস্তানে নির্বাচনে ইমরান খানের দল এগিয়ে


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৪৫ এএম
ইমরান
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও ক্রিকেটার ইমরান খান

নিউজ ডেস্ক: আগামী দুই মাসের মধ্যে ভারতের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। গত মাসের ২ নভেম্বর পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন এ ঘোষণা করেছিল। পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন  আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি দেশে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কথা ঘোষণা করে। এ জন্য প্রয়োজনীয় সব প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

 তবে এরই মধ্যে সাধারণ নির্বাচন নিয়ে একটি জরিপও করা হয়েছে, যার ফলাফল খুবই চমকপ্রদ। পাকিস্তানি নিউজ এআরওয়াই-এর করা জরিপ অনুযায়ী, ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সাধারণ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে জয়ী হতে পারে।

পাকিস্তানে তিনটি প্রধান দল রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল-এন, বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির পিপিপি এবং ইমরান খানের দল পিটিআই। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে পাকিস্তানে অনেক রাজনৈতিক অস্থিরতা চলছে। 

এ সময় ইমরান খানকে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে কারাগারেও পাঠানো হয়। তা সত্ত্বেও সমীক্ষার ফলাফল পিটিআই-এর পক্ষেই বলে মনে হচ্ছে। পাকিস্তানি সংবাদ এআরওয়াই-এর সমীক্ষা রিপোর্ট অনুযায়ী, জনগণ পিটিআই পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠনের কথা বলছে।

বর্তমান সরকারের জন্য চিন্তার বিষয়
 এআরওয়াই-এর সমীক্ষা প্রতিবেদনে প্রশ্ন উঠেছে যে পাকিস্তানে কোন দল আগামী সাধারণ নির্বাচনে পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করবে। এতে জনগণ পিটিআই-এর পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৪ শতাংশ ভোট দিয়েছে। 

এ ছাড়া দ্বিতীয় স্থানে নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল-এন পেয়েছে মাত্র ১১ শতাংশ ভোট এবং শেষে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির পিপিপি দল পেয়েছে প্রায় ৫ শতাংশ ভোট।

এই পরিসংখ্যান থেকে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, পাকিস্তানের জনগণ ইমরান খানকে আবারও প্রধানমন্ত্রী হতে দেখতে চায়। এই পরিসংখ্যান কিছুটা হলেও নওয়াজ শরিফ এবং তার জোট সরকারে অন্তর্ভুক্ত পিপিপির জন্য সবচেয়ে বড় উদ্বেগের বিষয় হয়ে উঠতে পারে।

বর্তমানে পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থা তেমন ভালো নয়। দেশে অর্থের অনেক অভাব। মৌলিক জিনিসের জন্য মানুষকে সংগ্রাম করতে হয়। এত কিছুর পরও নগদ অর্থের সংকটে ভুগছে এমন দেশে বহু প্রতীক্ষিত নির্বাচনের জন্য পানির মতো অর্থ অপচয়ের কথা বলা হচ্ছে। 

সম্প্রতি, একটি প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, পাকিস্তানের আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের জন্য, পাকিস্তানের অর্থ মন্ত্রণালয় নির্বাচন কমিশনকে ১৭.৪ বিলিয়ন রুপি বরাদ্দ করেছে। জুলাইয়ের আগে, ইতিমধ্যেই ১০ বিলিয়ন রুপি দেওয়া হয়েছিল, যার অর্থ পাকিস্তানে নির্বাচনের জন্য মোট ২৭.৪ বিলিয়ন রুপি ব্যয় করা হবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

আরো পড়ুন

banner image
banner image