• ঢাকা
  • রবিবার, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৬ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

কিশোরগঞ্জে বিএনপি মনা প্রার্থীকে এমপির সমর্থনের অভিযোগ একাধিক প্রার্থীর


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৩৫ পিএম
বিএনপি মনা প্রার্থীকে এমপির সমর্থনের অভিযোগ
কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকট সোহরাব উদ্দিন

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের পকুন্দিয়া উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি মনা প্রার্থীকে স্থানীয় সাংসদের সমর্থনের অভিযোগ করেছেন প্রার্থীরা।

কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকট সোহরাব উদ্দিনের প্রতি এমন অভিযোগ পাকুন্দিয়া উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে কই মাছ প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মকবুল হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষা করে মাননীয় সংসদ সদস্য (অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিন) নির্দিষ্ট একজন প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা প্রদান করেছেন। এটা আমরা শুনেছি এলাকার স্থানীয় অনেক জনগনও অভিযোগ করেছেন। যাকে উনি সমর্থন দিয়েছেন তিনি এমদাদুল হক জুটন (আনারস প্রাতীক) একজন বিএনপি মনা প্রার্থী, তিনি বিএনপি'র সমর্থক, তিনি বিএনপি পন্থী।

তিনি আরও বলেন, এখন পর্যন্ত নির্বাচেন লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড রয়েছে। প্রচার-প্রচারনায় কোনো বাধাবিঘ্ন নাই। আমি একটা ব্যপারে খুবই শংকিত। পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়ন নিয়ে আমার ভয় আছে। পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়নটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

কই মাছ প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব মো. মকবুল হোসেন আরও বলেন, পাকুন্দিয়া উপজেলার বিভিন্ন রাস্তা-ঘাটের যে বেহাল অবস্থা এগুলো আমি সুন্দর করতে চাই। পাকুন্দিয়া উপজেলাকে একটা মডেল উপজেলা হিসেবে গড়তে চাই। আর এই মডেল উপজেলা গড়তে হলে আমি আমার মন থেকে যেসব পরিকল্পনা নিয়েছি সেগুলো বাস্তবায়ন করাই হবে আমার মূল লক্ষ্য। আমি দেওয়ার এসেছি, নেওয়ার জন্য আসি নাই। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে ভিডিওতে উপজেলার পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম শহিদকে দেখা গেছে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের নিয়ে মিটিং করে আনারস প্রতীকের প্রার্থী এমদাদুল হক জুটনকে বিজয়ী করতে কাজ করার নির্দেশ নিচ্ছেন।

বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী মো. রফিকুল ইসলাম রেনুও কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকট সোহরাব উদ্দিনের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করেছেন।

এমদাদুল হক জুটনকে (আনারস প্রতীক) কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকট সোহরাব উদ্দিন সমর্থন দিয়েছেন এমন অভিযোগ এনে নির্বাচন থেকে আগেই সরে দাঁড়িয়েছেন জেলা শ্রমীক লীগ নেতা ও গার্মেন্টস ব্যবসায়ী আতাউল্লাহ সিদ্দিক মাসুদ।

এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ-২ (পাকুন্দিয়া-কটিয়াদী) আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট সোহরাব উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, কোনো প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে কোনো নেতাকর্মীকে আমি কোনো নির্দেশ দেইনি। দল যেহেতু নির্দেশ দিয়েছে কোনো সংসদ সদস্য উপজেলা নির্বাচনে কারো পক্ষে বিপক্ষে কাজ করতে পারবে না। সেহেতু এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন। নির্বাচনের মাঠ আমি উন্মুক্ত করে দিয়েছি। 

পাকুন্দিয়া উপজেলা মোট সংখ্যা ভোটার ২ লাখ ২৪ হাজার ৬৬৯ জন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১২ হাজার ৬৬৫জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ১২ হাজার ৪ জন। এই উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপজেলা পরিষদ বর্তমান চেয়ারম্যান মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে মো. রফিকুল ইসলাম রেনু, কই মাছ প্রতীক উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলহাজ্ব মো. মকবুল হোসেন, আনারস প্রতীক নিয়ে এমদাদুল হক জুটন, জেলা কৃষক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে অ্যাডভোকেট এ. কে. এম. হাবিবুর রহমান চুন্নু ও দোয়াত কলম প্রতীক নিয়ে  এ. কে. এম. দিদারুল হক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image