• ঢাকা
  • শনিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৪ ফেরুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

উৎসব মুখর পরিবেশে সাকরাইন ঘুড়ি উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ২০২৩ পালিত


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৮:০১ পিএম
ঘুড়ি উৎসব ২০২৩

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা নিউজ ২৪ঃ পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী সাকরাইন ঘুড়ি উৎসব ২০২৩ পালিত হয়েছে মহা ধুমধামে। উৎসব মুখর পরিবেশের শুরুতেই নাটাই দিয়ে ঘুড়ি উড়িয়ে উৎসব উদ্বোধন করেন জনাব খালিদ মাহমুদ চৌধুরী- মাননীয় এম,পি ও নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী, গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার! এবং জনাব আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির - সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগ! সাথে ছিলেন হাজী মোঃ আবু সাইদ - কাউন্সিলর, ৩৫ নং ওয়ার্ড! এবং বিশেষ বিশেষ ব্যাক্তিবর্গ!

সাকরাইন উৎসব, মূলত পৌষসংক্রান্তি, ঘুড়ি উৎসব নামেও পরিচিত, বাংলাদেশে শীত মৌসুমের বাৎসরিক উদ্‌যাপন, ঘুড়ি উড়িয়ে পালন করা হয়। সংস্কৃত শব্দ 'সংক্রান্তি' ঢাকাইয়া অপভ্রংশে সাকরাইন রূপ নিয়েছে। পৌষ ও মাঘ মাসের সন্ধিক্ষণে, পৌষ মাসের শেষদিন সারা ভারতবর্ষে সংক্রান্তি হিসাবে উদযাপিত হয়।

বর্ণিল এই আয়োজনে ছিল ঘুড়ি উড়ানো, কনসার্ট, ডিজে, মিডিয়া চ্যানেল, ফটোসেশন, ড্রোন শুট, আতশবাজি, হাঁসের মাংস দিয়ে চিতই পিঠা, ঝাল চাপরি পিঠা, ঝাল মুড়ি, চটপটি, কফি এবং নানা ধরনের বাহারি পিঠা! সাধারণ মানুষের প্রানবন্ত উপস্থিতি এবং এলাকার নেতাকর্মীদের উচ্ছ্বাস ছিল চোখে পড়ার মতো।

৩০পৌষ চৌদ্দশত উনত্রিশ বঙ্গাব্দ, ১৪-ই-জানুয়ারী ২০২৩ পুরান ঢাকা ফজলুল করিম কমিনিটি সেন্টার বংশাল ঢাকায় মালিটোলা সেবা সমাজ কল্যাণ সংঘের উদ্যোগে পুরান ঢাকার আদি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সাকরাইন ঘুড়ি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি বলেন, বাংলাদেশ অগ্রগামী দেশ। আগের ঢাকা এখন আর নেই। তবুও ঢাকাবাসীর এই সুন্দর উদ্যোগ আমাদের অভিভূত করে। উৎসব সবার জন্য। সবাই এতে মিলিত হচ্ছে এটাই হল আনন্দের বিষয়। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি কবির ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, আলহাজ্ব মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির বলেন, এসব অনুষ্ঠান দেখে আমাদের পুরনো স্মৃতি মনে পড়ে যায়। আমরা ছোট বেলায় মেলায় গিয়ে কি করতাম তা এখনো স্মৃতিতে ভাসছে। যারা এই অনুষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন তাদের সবাইকে সাধুবাদ জানাই। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন হাজী মোহাম্মদ সাহিদ-সহ সভাপতি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, গোলাম আশরাফ তালুকদার সাংগঠনিক সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, আব্দুর রহমান, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামীলীগ, মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, আলহাজ্ব গোলাম মোস্তফা- সাবেক সভাপতি, বংশাল থানা আওয়ামী লীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, সিরাজ উদ্দিন আহমেদ বাদল সাবেক সাধারণ সম্পাদক, বংশাল থানা আওয়ামীলীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, হাজী মোহাম্মদ আবু সাঈদ, কাউন্সিলর পয়ত্রিশ নং ওয়ার্ড, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন। হাজী আনোয়ার হোসেন- সাবেক সভাপতি, ৩৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ। ইমদাদুল হক ,সভাপতি-ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার এসোসিয়েশন। নাজমুল করিম ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক-ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন। আনোয়ার হোসেন আনু সভাপতি বাংলাদেশ ইন্টারনেট ব্যবসায়ী সমিতি, হীরা খান, সাধারণ সম্পাদক- বাংলাদেশ ইন্টারনেট ব্যবসায়ী সমিতি। পরিচালনায় আশিকুর রহমান আশিক, সাধারণ সম্পাদক- ৩৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগ। আয়োজনে মোহাম্মদ আলী সুমন সাংগঠনিক সম্পাদক ৩৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগ, আলোচনা শেষে খালেদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি ও আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির নাটাই দিয়ে ঘুড়ি উড়িয়ে উদ্বোধন করেন।  

ঝাকঝমক পূর্ণভাবে ঐতিহ্যবাহী সাকরাইন ঘুড়ি উৎসব পালন করা  হয়। সন্ধ্যার পর বর্ণিল আতশবাজির আলোকছটা দেখেছেন এলাকাবাসী। 

ঢাকানিউজ২৪.কম / Md. Jubayer Hossain

উৎসব / দিবস বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image