• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২৩ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

লক্ষ্মীপুর জেলায় ১ দিনে তথ্য চেয়ে আবেদন পড়েছে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০:১৫ এএম
লক্ষ্মীপুর জেলায় ১ দিনে তথ্য চেয়ে আবেদন পড়েছে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার
সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) লক্ষ্মীপুর জেলার সভাপতি প্রফেসর জেডএম ফারুকী

নাজমুল হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর জেলার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানে একদিনে তথ্য চেয়ে আবেদন হয়েছে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার।

এরমধ্যে তাৎক্ষণিক ৪ হাজার ৩'শ ৮১টি আবেদনের উত্তর প্রদান করা হয়। আবেদনকৃত প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য রয়েছে সদর উপজেলা ভূমি অফিস, জেলা পুলিশ, সদর হাসপাতাল, পৌরসভা, পাসপোর্ট, বিআরটিএসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি দপ্তর।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) লক্ষ্মীপুর জেলার সভাপতি প্রফেসর জেডএম ফারুকী।

এর আগে মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) তথ্য অধিকার আইন, ২০০৯ সম্পর্কে সাধারণ মানুষ ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দিনব্যাপী তথ্য মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

লক্ষ্মীপুর আদর্শ সামাদ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা প্রশাসন ও সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক)-টিআইবি, লক্ষ্মীপুর এ আয়োজন করেন। এতে সরকারি-বেসরকারি ৩৫টি সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেন।

ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মুহাম্মদ আনোয়ার পাশা। তার আগে একটি বর্ণাঢ্য র‍্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

পরবর্তী সামাদ মাঠে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তারেক বিন রশিদ, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী রেজাই রাফিন সরকার, সিভিল সার্জন ডাঃ আহাম্মদ কবীর, লক্ষ্মীপুর পৌর মেয়র মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া এবং সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) লক্ষ্মীপুর জেলার সভাপতি প্রফেসর জেড. এম ফারুকী।

লক্ষ্মীপুর জেলার সনাক সদস্য শাহানা আক্তার এর সঞ্চালনায় এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক সাজিয়া পারভীন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মেহের নিগার, টিআইবি চট্টগ্রাম ক্লাস্টার কো-অর্ডিনেটর মো. জসিম উদ্দিন, লক্ষ্মীপুর জেলার সনাক সদস্য প্রফেসর রফিকুল ইসলাম, আবুল মোবারক ভূঁইয়া, হুমায়ুন কবির, খোদেজা খাতুন, কবির হোসেন সহ অন্যান্য সনাক সদস্য ও বিভিন্ন দপ্তর প্রধানগন।

প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মুহাম্মদ আনোয়ার বলেন, বর্তমানে সবধরণের তথ্য জনগণের হাতের মুঠোয়, সরকারি সকল দপ্তরের তথ্য এখন ওয়েবসাইটে সহজে পাওয়া যায়। তাই ওয়েবসাইট ভিজিট করেই আমরা সবধরণের তথ্য সেবা সহজেই নিতে পারি।

প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মুহাম্মদ আনোয়ার আরও বলেন, জনগণ সেবা নেওয়ার জন্য সরকারি দপ্তরে না গিয়েই অনলাইনে আবেদন করে সেবা নিতে পারেন। সরকার চায় জনগণ যেন সরকারি দপ্তরে গিয়ে হয়রানির শিকার না হয়, সেজন্য স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছেন। জনগণ যদি অনলাইনের মাধ্যমে সেবাগ্রহণ করে তাহলে সরকারি কর্মকর্তারা ঘুষ নেওয়ার সুযোগ পাবে না।

প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মুহাম্মদ আনোয়ার আরও বলেন, আমাদেরকে কোন তথ্যের জন্য কোথাই আবেদন করবো সে বিষয়টি জানতে হবে। তথ্য অধিকার আইনের কার্যকর বাস্তবায়নের মাধ্যমে জনগণের ক্ষমতায়ন এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ করা সম্ভব। সাধারণ জনগণের দোড়গোড়ায় সেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য তথ্য অধিকার আইন, ২০০৯ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই সকলকে তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করতে হবে।

এছাড়া লক্ষ্মীপুর জেলায় দিনব্যাপী তথ্য মেলায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ইয়েস গ্রুপের বিশেষ উদ্যোগের আওতায় দুর্নীতিবিরোধী কুইজ, বিতর্ক ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং মেলায় আসায় আগত দর্শনাথীদের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে কীভাবে তথ্য পেতে পারেন সেজন্য তথ্য প্রাপ্তির আবেদন ফরম পূরণ সম্পর্কে ধারনা প্রদান করা হয় তথ্য প্রাপ্তির।

এতে লক্ষ্মীপুরের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে। এছাড়াও মেলায় কিশোর কিশোরী স্বাস্থ্য সচেতনতা বিষয়ক আলোচনা, সরকারি পরিষেবা বিষয়ক সেবা সংলাপ, দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে জননী সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।

বিকেলে পুরস্কার বিতরণ এবং সনাক-ইয়েস গ্রুপের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনার মধ্য দিয়ে তথ্য মেলার সফল সমাপ্তি হয়। 

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image