• ঢাকা
  • রবিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ১৪ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

জাহাজে আটকে পড়া জয়ের মায়ের আহাজারী 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১৩ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০১:৪৪ পিএম
মায়ের আহাজারী 
জাহাজে আটকে পড়া জয়

নিউজ ডেস্ক : ভারত মহাসাগরে বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ ‘এমভি আব্দুল্লাহ’ সোমালিয়ান জলদস্যুদের কবলে পড়েছে। 

জাহাজের ২৩ নাবিক ও ক্রুকে জিম্মি করেছে জলদস্যুরা। জিম্মিদের মধ্যে আছেন নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের সালাইনগর গ্রামের মো. জয় মাহমুদ। জিয়াউর রহমানের ছেলে জয় জাহাজের একজন ক্রু। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় মা-বাবার সঙ্গে জয় সর্বশেষ কথা বলেন।

জয়ের চাচাতো ভাই মারুফ হোসেন বলেন, মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় জয়ের মা-বাবা তার সঙ্গে সর্বশেষ কথা বলেন। পরে আমিও তার সাথে কথা বলি। জয় জলদস্যুর কবলে পড়েছে বলে আমাকে জানায় এবং বিষয়টি কাকা-কাকির কাছে গোপন রাখতে বলে। সন্ধ্যা ৬টা ৩৯ মিনিটে জয় হোয়াটসঅ্যাপে জানায়, তাদের মোবাইল কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। এরপর আর কথা বলা যায়নি। 

গণমাধ্যমে খবর প্রচার হলে সন্ধ্যার পরে এলাকাবাসী জলদস্যুর হাতে জয়ের জিম্মি হওয়ার বিষয়টি জানতে পারে। খবর প্রচারের পর জয়ের বাড়িতে কান্নার রোল পড়ে। মারুফ হোসেন জানান, ছেলের অমঙ্গলের আশঙ্কায় রাত থেকে একটানা কেঁদেই চলেছেন জয়ের মা আরিফা বেগম। 

জয় মাহমুদরা দুই ভাই-বোন। জয় বড়। ২০২১ সালে তিনি জাহাজে চাকরি নেন। এরপর প্রশিক্ষণ শেষে চার মাস ছুটি কাটিয়ে জাহাজে ফেরেন। 

তিনি বলেন, ‘জয়ের জাহাজ কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছি শেষ খবর জানার জন্য।’

জয়ের মা আরিফা বেগম বলেন, ‘আমার কলিজার টুকরা যেন সহিসালামতে থাকে। তাকে আমার বুকে ফিরিয়ে দাও মাবুদ।’

জয় মাহমুদের বাবা জিয়াউর রহমান বলেন, ‘আমার ছেলেসহ জিম্মি হওয়া সবাইকে দ্রুত উদ্ধার করা হোক, সরকারের কাছে এটাই আমার আবেদন।’

স্থানীয় ইউপি সদস্য মজিবর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশের জাহাজ জলদস্যুদের কবলে পড়ার খবরে এলাকার মানুষ অজানা আশঙ্কায় সময় কাটাচ্ছেন। আমরা সরকারের কাছে আবেদন জানাই, আটকা পড়াদের যেন দ্রুত  উদ্ধার করা হয়।’

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image