• ঢাকা
  • সোমবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৮ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

মৌলভীবাজারে বাংলা টিভির সাংবাদিক নিহত 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১০:২৮ এএম
মৌলভীবাজারে
বাংলা টিভির সাংবাদিক বিক্রমজিৎ বর্ধন নিহত 

মোঃ জহিরুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার : মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় মাথায় গাছ পড়ে বিক্রমজিৎ বর্ধন (৫৫) নামে এক সাংবাদিকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বেসরকারি সম্প্রচারমাধ্যম বাংলা টিভির শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি ও শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবে সিনিয়র সদস্য  ছিলেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তার ছেলে জয় বর্ধন(২৫)।

শুক্রবার (১১ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে উপজেলার মোকামবাজার এলাকায় ১২ নং গিয়াস নগর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের নিতেশ্ব গ্রামের ঢাকা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, মোটসাইকেল যোগে মৌলভীবাজার শহরে  বড় ছেলে জয় বর্ধনের ফ্যামিলি প্ল্যানিংয়ের ইন্টারভিউ দিয়ে শ্রীমঙ্গলে বাড়ি ফিরছিলেন বিক্রমজিৎ বর্ধন। 

তারা যখন মোকামবাজার এলাকায় ঢাকা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে আসেন, সেখানে রাস্তার পাশের সামাজিক বনায়নের অরক্ষিতভাবে উকিল মিয়া নিজের জন্য গাছ কাটাছিলেন । রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি গাছ বিক্রমজিৎতের মাথায় পড়ে। ঘটনাস্থলেই তিনি  নিহত হন। আহত হন তার ছেলে জয় বর্ধণ (২৫)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, যারা গাছ কাটছিলেন, ঘটনার পরপরেই তারা দৌড়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। যে কারণে কাউকে ধরা সম্ভব হয়নি। জানা যায় সামাজিক বনায়নের কমিটি খুবই শক্তিশালী তারা হলেন, মোঃ মোয়াফিকর মিয়া, পিতা মৃত তুরাব উল্ল্যাহ, মোঃ উকিল মিয়া, পিতা মৃত কোরবান মিয়া, মোঃ সালমান মিয়া, পিতা রিয়াজ মিয়া,  মো: তুহিনুল হক, পিতা মো: আজিজুল হক টিপু, মো: রিয়াজ মিয়া পিতা অজ্ঞাত, মো: রাজিবুল হক, পিতা মো: আজিজুল হক টিপু, মোঃ রোমান আহমেদ অনতু, পিতা মোঃ রিয়ান মিয়া, মো: ফয়সল আহমেদ , পিতা আলকাছ উল্ল্যাহ ও মো: জুয়াহির মিয়া, পিতা মো: তুরাব উল্ল্যাহ।  এই সাত জন মিলে এঘটনায় জড়িত তারা নিতেশ্বর এলাকায় খুব প্রভাব খাটিয়ে চলে।এদের বিরুদ্ধে এলাকার কেহ সহজে মুখ খোলে না।  

ঘটনার খবর পেয়ে ১২ নং গিয়াস নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান টিপু মৌলভীবাজার  হাসপাতালে ছুটে যান। খবর নিয়ে জানা যায় এরা চেয়ারম্যানে ঘনিষ্ট লোকজন।  

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক বিক্রমজিৎকে মৃত ঘোষণা করেন। জয় প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরেন।

এব্যাপারে মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি ইয়াসিনুল হক বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে এখনও কেই কোনো জিডি বা মামলা দায়ের করেননি। লিখিত অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যারা গাছ কাটছিলেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 
 
বিক্রমজিৎ বর্ধনের মৃত্যুতে শোক ও পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন  মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান,  শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা আলী রাজিব মাহমুদ মিঠুন, শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবে সভাপতি ও  জেলা জর্জ কোটে সাবেক পিপি আজাদুর রহমান, শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাব সভাপতি বিশ্বজ্যোতি চৌধুরী, শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি  মো: আনিসুর রহমান আশরাফি,  শ্রীমঙ্গল ফটোগ্রাফার এসোসিয়েশন সভাপতি ও সম্পাদক ।

এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত পরিবার থেকে গেছে মামলাট প্রস্তুতি চলছে।  

গতকাল শক্রবার রাত ৯ টার  দিকে নিহতের বাড়িতে ছুটে যান জেলা প্রশাসকের নির্দেশে শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা আলী রাজিব মাহমুদ মিঠুন  তিনি সরকারীভাবে লাশ দাহের জন্য নগদ ২০ হাজার টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান করে  নিহত সাংবাদিক বিক্রমজিৎ বর্ধণ এর  বড় ছেলে জয় বর্ধনের নিকট।  

এসময় উপজেলা নিবার্হি কর্মকর্তা আশ্বস্ত করে বলেন যে কোন প্রয়োজনে উপজেলা প্রশাসনের দরজা সব সময় খোলা যে কোন  সহযোগীতার জন্য।  

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

দুর্ঘটনা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image