• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৬ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

সবজি চাষে চমক দেখালেন গুইমারা থানার ওসি


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০৩ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:১৫ পিএম
গুইমারা থানার ওসি মোহাম্মদ রশিদ
সবজি চাষে চমক দেখালেন ওসি মোহাম্মদ রশিদ

রিপন সরকার, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ রশিদ। পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সবজি চাষ করে চমক দেখিয়েছেন। নিজের হাতে সবজি বাগান পরিচর্চা করে প্রশংসিত হচ্ছেন তিনি। 

গুইমারা থানার আঙ্গীনায় পতিত জায়গায় প্রাকৃতিক জৈব সার ব্যাবহার করে বিষমুক্ত ৩৫ প্রজাতির সবজি চাষ করার ফলে  পাল্টে গেছে থানা কম্পাউন্ডের দৃশ্যপট। পাহাড়ী বন-জঙলে মোড়ানো প্রায় পাঁচ একর জায়গা যেন সবু‌জের বিশাল সমা‌রোহ। চিরচেনা এ সবুজ দৃশ্য থানায় সেবা নিতে আসা মানুষের নজর কেড়েছে। 

৩৫ প্রজাতির  ফলজ গাছের মধ্যে উল্লেখযোগ্য রয়েছে বারি মাল্টা,  বিদেশী বল সুন্দরী বরই, কাশ্মীরী বরই আপেল কূল বরই , নাসপাতি, সফেদা,লটকন মিয়াজাকি, কিউজাই, কিংচাকাপাত,  পালমার, থাই বানানা, ব্রুনাই কিং, ব্লকস্টোন, সুপারিগাছ, সূর্যমূখী কলা গাছ, সাগরকলা গাছ সরবী কলা গাছ সহ আরো অনেক ফলজ গাছ।

থানার সীমানা প্রাচীরের পাশে সারি সারি ভাবে রোপন করা হয়েছে সুপারি গাছ যা থানার নান্দনিক সৌন্দর্য বৃদ্ধি করেছে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, চারদিকে ইট পাথরে ঘেরা চত্বর এখন ফসলের মাঠ। সেখানে গাছে গাছে জুলছে শিম, টমেটো,  বেগুন, ঢেঁড়স,মিষ্টি কুমড়া, বাঁধাকপি, ফুলকপি, লাউ,  লালশাক, ডাটাশাক, পুঁইশাক, ধনিয়া পাতা, পেঁপে, পুদিনাসহ নানা রকমের সবজির  ও ফলের বাগান রয়েছে। 

প্রধানমন্ত্রী জন‌নেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা ও আইজিপি  চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন  মহোদয়ের নির্দেশনায় এবং খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মো:নাইমুল হক  মহোদয়ের নির্দেশনা মতে বাড়ির আঙ্গিনায় সহ পতিত জায়গা খালি না রেখে সবজি চাষ করার আহ্বানে  গুইমারা  থানার ওসি মুহাম্মদ রশিদ  থানার পতিত জমিতে  শীতকালীন সবজি চাষের  এ উদ্যোগ নেন। 

গুইমারা থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. সাদ্দাম হোসেন বলেন, গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ রশিদ স্যার এখানে   যোগদানের পর তার আন্তরিকতায় ঝোপ জঙ্গল পরিস্কার করে থানা কমপাউন্ডের সামনে সবজি চাষ ও মিশ্রয় ফলজ গাছের চারা রোপনে বদলে গেছে গুইমারা থানার দৃশ্যপট। 

গুইমারা থানার পুলিশ কনস্টেবল মো. আতিকুর রহমান বলেন,আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় থানা কম্পাউন্ডে সবজির বাম্পার ফলন হয়েছে  ডিউটির ফাঁকে ফাঁকে অবসর সময়ে সবজি বাগান ও  ফলজ বাগানে সকালে ও বিকেলে   আমরা সকলে উৎসাহ নিয়েই কাজ করি।

গুইমারা থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শাহেদা আক্তার বলেন, সবজি বাগানের সামনে দাড়ালে মনে হয় নিজের বাড়িতেই আছি। ওসি স্যারের আন্তরিকতায় থানার আঙ্গিনায় সবজি চাষ ও মিশ্রয় ফলজ বাগান গড়ে উঠেছে। আমরা পুলিশ সদস্যরা নিজেদের হাতেই সবজি বাগান থেকে লাউ, শাক, কুমড়া তুলে খাওয়ার যে স্বাদ সেটা  সবাই উপভোগ করি 

থানা আঙ্গিনায় সবজি চাষ সর্ম্পকে জানতে চাইলে গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ রশিদ বলেন, এ বছরের জুলাই মাসের মাঝামাঝি এ থানায় যোগদানের এক মাস না যেতেই থানার চার দিকে ঝোপ জঙ্গল: পরিস্কার করে থানার আঙিনায় ফাঁকা জায়গায় সবজি উৎপাদনের চিন্তা মাথায় আসে। সে চিন্তা থেকেই সবজি চাষ শুরু করেছি। এবং সাফল্যও পেয়েছি। নিজের হাতে উৎপাদিত সবজি দিয়ে এ থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্যদের ৫০ শতাংশ চাহিদা পুরন হচ্ছে তিনি আরো জানান আগামী একমাসের মধ্যে থানার সবজি,র চাহিদা শতভাগ পূরন হবে। 
রিপন সরকার খাগড়াছড়ি

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image