• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২৫ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

শ্রীমঙ্গলের নাদিরার লন্ডনে ডিগ্রি অর্জন 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০২:৪৭ পিএম
শ্রীমঙ্গলের নাদিরার লন্ডনে ডিগ্রি অর্জন 
নাসরিন আক্তার নাদিরা লন্ডনে আলস্টার ইউনিভার্সিটির প্রফেসরদের সাথে

মো: জহিরুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টার : মৌলভীবাজারে শ্রীমঙ্গল উপজেলার  কৃতি সন্তান নাদিরা লন্ডনের  আলস্টার ইউনিভার্সিটিত থেকে গত ২৫ এপ্রিল  ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস উইথ এডভান্সড প্রাকটিস ডিগ্রি অর্জন করেছে।  

নাসরিন আক্তার নাদিরা শ্রীমঙ্গল শ্যামলী এলাকার ছফেদ মিয়ার রোডে মৃত নওয়াব মিয়া ও রেনু বেগমের ৫ম কন্যা, তিনি ২০২০ সালে লন্ডনের আলস্টার ইউনিভার্সিটিতে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস উইথ এডভান্সড প্র‍্যাক্টিস বিভাগে পড়াশোনার জন্য লন্ডনে পাড়ি জমান। 

নাসরিন আক্তার নাদিরা ১৯৯৪ সালের ১৬ মে শ্রীমঙ্গল শহরের শ্যামলী এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন, ৬ বোনের মধ্যে সে ৫ম বোন।  

রবিবার (৩০ এপ্রিল) নাদিরার বোন ইয়াসমিন আক্তার শিরিন বলেন, আমার বোন নাসরিন  আক্তার নাদিরা হাজী আব্দুল গফুর হাই স্কুল থেকে ২০১০ সালে  বিজ্ঞান বিভাগ থেকে  এসএসসি, দি বাডস রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এইচএসসি ২০১২ সাল ও সিলেট এমসি কলেজ থেকে ২০১৬ সালে অর্নাস ও মার্সটার্স ২০১৮ সালে পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে পাস করে। 

লন্ডন থেকে  নাসরিন আক্তার নাদিরা জানান, আমার পিতার  ছোটবেলা থেকেই আমাকে স্বপ্ন ছিল আমি বড় হয়ে প্রতিষ্ঠিত হই। এই জন্য আমি মন দিয়ে পড়াশোনা করতাম আর আমার পিতা আমাকে সবসময় সাপোর্ট দিতেন। আমি এমসি কলেজে সফলভাবে মাস্টার্স শেষ করার পর ২০২০ এর সেপ্টেম্বর সেশনে আলস্টার ইউনিভার্সিটিতে মাস্টার্স পড়ার জন্য লন্ডনে এসেছিলাম। আমার পছন্দের সাবজেক্ট ছিল ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস উইথ এডভান্সড প্র‍্যাক্টিস। আমি ২০২২'র সেপ্টেম্বরে সফলভাবে আমার কোর্স সম্পন্ন করেছি। আমি এই বছর  গত ২৫ শে এপ্রিল আমার গ্রাজুয়েশন সিরিমনিতে অর্জন করেছি । আমার এই  অর্জন আমার দেশের গর্ব। আমার রেজাল্ট নিয়ে আমি গর্ববোধ করি এবং এই অনুভূতি আমার কষ্টের সবকিছু লাঘব করে দিয়েছে। আর মনে হয়েছে আমার পিতার স্বপ্ন পূরণ করতে পেরেছি। আজ এত দূর এসেছি আমার বাবা, মা বোনের দোয়াতে। আমি দেশবাসী কাছে দোয়া চাই আমার  অর্জন আর সাফল্য ধারাবাহিক ভাবে ধরে রাখতে পারি এবং দেশের নাম উজ্জল করতে পারি।  

তিনি আরও জানান, আমার এই সফলতায় আমি সবচেয়ে বেশি আমার পিতাকে  মিস করছি,আজকে আমার প্রিয় পিতা বেঁচে  থাকলে কি যে খুশি হতেন। আমি দেশের মানুষের এবং আমার নিজের শহরের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই। আমি সকলের কাছে দোয়া কামনা করছি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image