• ঢাকা
  • শনিবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ০২ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

সূর্যে রহস্যময় কালো গর্ত, সৌর ঝড়ের আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৫৯ এএম
coronal
করোনাল হোল, সূর্যের মধ্যে গর্ত

নিউজ ডেস্ক: মহাকাশ বিজ্ঞানীরা সূর্যের পৃষ্ঠে একটি বিশাল গর্ত দেখতে পেয়েছেন। বিজ্ঞানীদের মতে, এই গর্তের আকার আমাদের পৃথিবীর চেয়ে 60 গুণ বড়। যা নিয়ে চিন্তিত জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। এই গর্তটি করোনাল হোল নামে পরিচিত। এটি একটি কালো এবং অন্ধকার গর্ত মত দেখায় যেখান থেকে সূর্যের আলো অদৃশ্য হয়ে গেছে।

সায়েন্স অ্যালার্ট ডটকমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই গর্তের আকার আরও বাড়তে পারে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাল গর্ত এখনও অনেক বড়। এর প্রস্থ 4,97,000 মাইল, তাই এটি একের পর এক 60টি পৃথিবীকে মিটমাট করতে পারে। এমতাবস্থায় এই গর্ত থেকে বের হওয়া সৌর ঝড়ের পরিমাণও অনেক বেশি হবে।

গর্ত থেকে প্রবল বাতাস আসছে

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সূর্যের এই বিশাল গর্তের কারণে ভবিষ্যতে পৃথিবীর অনেক ক্ষতি হতে পারে। এই গর্ত থেকে ঝড়ের মতো বাতাস বের হচ্ছে। যার কারণে পৃথিবীর ক্ষতি হতে পারে। করোনাল হোল হল এমন এলাকা যেখানে সূর্যের চৌম্বক ক্ষেত্র মহাকাশে খোলে, সৌর বায়ুকে আরও অবাধে পালাতে দেয়।


সানস্পটগুলি, বিশেষত, সূর্যের পৃষ্ঠের শীতল এলাকা, যেখানে চৌম্বক ক্ষেত্র বেশ শক্তিশালী। যাইহোক, এই সবের মধ্যে, বিজ্ঞানীরা দেখতে পেয়েছেন যে করোনাল হোলটি পৃথিবী থেকে দূরে এক দিকে সরে যাচ্ছে। এমতাবস্থায়, করোনাল হোল বর্তমানে পৃথিবীর জন্য কোন উল্লেখযোগ্য হুমকি নয়। যাইহোক, এটি 2024 সালের মধ্যে তার সর্বোচ্চ প্রভাব দেখাতে পারে।

সৌর ঝড়ের ভয়

গর্ত থেকে বেরিয়ে আসা বাতাস সম্পর্কে একটি সম্ভাবনা ব্যক্ত করা হয়েছে যে এটি একটি সৌর ঝড় হতে পারে। আসলে, সৌর ঝড় হল সূর্য থেকে নির্গত বিকিরণ, যা সমগ্র সৌরজগতকে প্রভাবিত করতে পারে। এই প্রভাবের কারণে, এমনকি পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্রও সংরক্ষণ করা হয় না। এজন্য একে দুর্যোগ বলা হয়।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

আরো পড়ুন

banner image
banner image