• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

নিখোঁজ হওয়া শিশু ওহি কে উদ্ধারে মানববন্ধন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ১০ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৪৫ পিএম
নিখোঁজ হওয়া
শিশু ওহি কে উদ্ধারে মানববন্ধন

নাজমুল হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর জেলায় নিখোঁজ শিশু মালিহা ইসলাম  ওহিকে উদ্ধারের দাবিতে মানববন্ধন পালিত হয়।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ অগ্রণী রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সামনে ঘণ্টাব্যাপী  উক্ত  মানববন্ধন পালিত হয়।

৩ দিনপার হয়ে গেলেও স্কুল থেকে  চুরি হওয়া ৯ মাস বয়সী শিশু মালিহা ইসলাম ওহি উদ্ধার হয়নি।  গত ৮ ফেব্রুয়ারি নিখোঁজ হয় শিশু ওহি  । গত ৩ দিন শিশুটির মা বাবা আত্নীয় স্বজন ও কমলনগর থানা পুলিশ খোঁজে তাকে উদ্ধার করতে এখোনো পারেনি। এতে সন্তানের শোকে পাগলপ্রায় মা মরিয়ম বেগম। তার কান্না থামানোর কোনো উপায় খুঁজে পাচ্ছে না কেউই।

চুরি হওয়া ওহির বড় বোন সাবিহা ইসলাম মিহি (৬) অগ্রণী রেসিডেন্সিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের নার্সারি শ্রেণির ছাত্রী।

গত বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ছিল। সেখানে মিহি যেমন খুশি তেমন সাজো অনুষ্ঠানে যোগ দেয়। এতে ওহিকে নিয়ে তার মা মরিয়মও বিদ্যালয়ে যান। মিহিকে সাজানোর জন্য চুলের ক্লিপ ও বেল্ট আনার জন্য মরিয়ম বেগম মায়া নামের তার এক ফুফাতো বোনের নিকট (৬ষ্ঠ শ্রেণির  ছাত্রী) শিশু  ওহিকে রেখে যান। 

বাজার থেকে ফিরে এসে মরিয়ম বেগম জানতে পারেন, তার শিশু ওহিকে এক মহিলা কোলে নেওয়ার কথা বলে চুরি করে নিয়ে গেছেন।

তখন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পুলিশে খবর দেয় এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে বিদ্যালয়ের ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা যাচাই করে দেখতে পায়, মাথায় লাল হিজাব, মুখে মাস্ক ও কালো বোরকা পরিহিত এক নারী শিশুটিকে কোলে নিয়ে বের হয়ে যাচ্ছেন।

বাজারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরা যাচাই করেও একই দৃশ্য দেখা গেছে। এ ঘটনার সঙ্গে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জড়িত রয়েছে বলে শিশুর মাসহ স্বজনদের অভিযোগ।

তবে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শফিক উল্যাহ বলেন, শিশুটিকে তার মা একজন আত্মীয়ের কাছে রেখে যান। বিষয়টি বিদ্যালয়ের কেউ জানতো না। শিশুটি নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা শোনা মাত্রই আমরা পুলিশকে জানাই। পুলিশ এসে সিসি ক্যামেরা যাচাই করে শিশুটিকে উদ্ধারে কাজ করছে। আমরাও বিভিন্নভাবে চেষ্টা করছি। আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য নয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন তোরাবগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের ১ নং ওয়ার্ডের সদস্য আবদুল মতিন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শফিক উল্যাহ,  রাকিবুল হাসান বিপ্লব, ওহির দাদা চৌধুরী মাঝি, মামা সোহাগ মিজি ও স্বজন বজলুর রহমান প্রমুখ।

ওহি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার তেওয়ারীঞ্জ ইউনিয়নের চরউভূতি গ্রামের আবুধাবি প্রবাসী মো. সেলিমের কন্যা। তার মা মরিয়ম ওই বিদ্যালয়টির সাবেক শিক্ষক।

কমলনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল জলিল বলেন, শিশু ওহিকে উদ্ধারে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকসহ স্থানীয় বাসিন্দাদের সহযোগিতা প্রয়োজন। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি তাকে উদ্ধারের জন্য।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image