• ঢাকা
  • শনিবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০২ জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ও গণসংহতির সদস্য পদ স্থগিত, বামজোটে অস্হিরতা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ২৫ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৬:২৯ পিএম
জোট প্রক্রিয়ায় আছে, তাহলে তারা একটাই করুক
বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ও গণসংহতি আন্দোলন

নিউজ ডেস্ক:   রাজধানীর পুরানা পল্টনে সিপিবির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মঙ্গলবার বিকাল পৌনে পাঁচটায় বামজোটের বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে প্রায় সব দলের কয়েকজন করে প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। বৈঠকে জোটের সদস্য পদ রেখেও কীভাবে বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলার প্রক্রিয়া গড়ে তোলা যায়, সে বিষয়ে সাইফুল হক ও জোনায়েদ সাকি বক্তব্য দেন। তারা বক্তব্যে সাত দলীয় রাজনৈতিক মঞ্চকে (গণতন্ত্র মঞ্চ) জোট হিসেবে না দেখে বৃহত্তর ঐক্যের একটি প্ল্যাটফরম হিসেবে বিবেচনা করার পরামর্শ দিয়েছেন। যদিও জোটের বাকি সদস্য দলগুলো তাদের প্রস্তাবে সম্মতি দেয়নি।

সাইফুল হকের নেতৃত্বাধীন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি  ও জোনায়েদ সাকির নেতৃত্বাধীন গণসংহতি আন্দোলনের সদস্যপদ স্থগিত করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জোটের সাবেক সমন্বয়ক ও বাসদের সাধারণ সম্পাদক বজলুর রশীদ ফিরোজ বলেন, ‘বামজোট বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি  ও গণসংহতি আন্দোলনের সদস্যপদ স্থগিত করেছে। তারা আলাদা জোট করতে চেয়েছে। দুইটা জায়গায় তো থাকা যাবে না।’

বজলুর রশীদ ফিরোজ বলেন, ‘সবাই আলাপ-আলোচনার মধ্য দিয়েই একমত হয়েছে যে, তারা যেহেতু আরেকটি জোট প্রক্রিয়ায় আছে, তাহলে তারা একটাই করুক। তারা যদি ভালো কিছু করতে পারে, সেখানে থাকবে। আর যদি ফিরে আসে, তাহলে সদস্যপদ ফিরে পাবে। সে কারণে তাদের সদস্য পদ স্থগিত রাখা হয়েছে। জোটের বক্তব্য, বিবৃতিতে তাদের নাম এখন থেকে উল্লেখ করা হবে না।’

সদস্যপদ স্থগিতাদেশ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, ‘আমরাই বলেছি, সদস্যপদ নিষ্ক্রিয় রাখার জন্য। আমরা মনে করি, ফ্যাসিবাদবিরোধী লড়াইয়ে সব বাম, গণতান্ত্রিক শক্তিকে বৃহত্তর আন্দোলন ও তার ভিত্তিতে আন্দোলনের প্ল্যাটফরম গড়ে তোলা দরকার। চিন্তা ও কৌশলগত দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য থাকায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

জানতে চাইলে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে আমরা বামজোটের পাশাপাশি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের ভোটাধিকার রূপান্তরের কর্মসূচির ভিত্তিতে অপেক্ষাকৃত বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তুলতে উদ্যোগ গ্রহণের কথা বলে আসছি। সম্প্রতি সাত দলের ঐক্যবদ্ধ প্রক্রিয়াটি নিয়েও বামজোটকে আহ্বান জানিয়েছি। কিন্তু বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি  ও গণসংহতি আন্দোলন ছাড়া বাকি সদস্যরা কেবলমাত্র বাম ঐক্যে আগ্রহী। তাই তারা সদস্যপদ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

জোনায়েদ সাকি আরও বলেন, ‘আমরা আশা করি, তারাও ফ্যাসিবাদ অবসানে গণতন্ত্রের লড়াইয়ে রাজপথে থাকবেন। ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রক্রিয়া আমরা অনুসন্ধান করতে সচেষ্ট থাকবো।’

জোটের শরিক নেতা জানান,সন্ধ্যা ছয়টার দিকে সাইফুল হক ও জোনায়েদ সাকি বৈঠক থেকে বেরিয়ে আসেন। তাদের দলের সদস্য পদ স্থগিত করার সিদ্ধান্ত হলেও বৈঠকটি আন্তরিক পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ড.ফখরুদ্দিনের শাসনামলে ২০০৭ সালের ১২ সেপ্টেম্বর গণতান্ত্রিক বামমোর্চা গঠিত হয়।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

রাজনীতি বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image