• ঢাকা
  • রবিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২১ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

বাংলা একাডেমিতে এনআরবি-পিবিও সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলন শুরু


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৩ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:০২ পিএম
প্রবাসীদের নিয়ে সাহিত্য সম্মেলনসহ বিভিন্ন কাজ করায়
বাংলা একাডেমিতে সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলন

নিউজ ডেস্ক:  নাবাসী বাংলাদেশি (এনআরবি) ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত (পিবিও) কবি সাহিত্যিক, সংস্কৃতি কর্মীদের সাহিত্যকর্ম নিয়ে শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী এনআরবি-পিবিও সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলন। বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী।

উদ্বোধনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, আমি আসলে প্রবাসী শব্দটা ব্যবহার করতে চাই না, তারা আমাদের স্বজন। বাংলা ভাষার চর্চা নিয়ে অনেক আলোচনা হয়, কিন্তু তেমন প্রয়োগ হয় না। প্রবাসীদের নিয়ে সাহিত্য সম্মেলনসহ বিভিন্ন কাজ করায় আমি আয়োজকদের ধন্যবাদ জানাই। 

বিশেষ অতিথি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. পবিত্র সরকার বলেন, নিজের দেশকে বুকের মধ্যে রেখে চলতে হবে। পৃথিবীর অন্য কেনো দেশে প্রবাসীদের নিয়ে এমন কোনো সংগঠন আছে কিনা আমার জানা নেই। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অগ্রগণ্য। এই সম্মেলনে এসে আমি জীবনের শ্রেষ্ঠ পুরস্কার পেলাম। বাংলাদেশের যে কোনো অনুষ্ঠানে আসার জন্য আমি সব সময় এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকি। 

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার বলেন, প্রথমবারের মতো এ ধরনের আয়োজন এত বড় পরিসরে হচ্ছে যা আমাকে মুগ্ধ করেছে। আয়োজনের সময়টিও খুবই ভালো। প্রবাসীরা সব সময় বুকে এক টুকরা বাংলাদেশ নিয়ে ঘোরেন।

সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব খলিল আহমদ বলেন, প্রবাসীদের এমন সাহিত্য সম্মেলনের আয়োজন সত্যিই প্রশংসনীয়। প্রবাসীদের সৃজনশীল কাজ তুলে ধরা মহৎ কাজ। বাংলাদেশের বিভিন্ন দূতাবাসে কর্মরত কর্মকর্তাদের অভিজ্ঞতা বই আকারে তুলে ধরা যেতে পারে। তিনি এনআরবি স্কলার্স পাবলিশার্সের ওয়েবসাইট  

অনুষ্ঠানের আয়োজকেরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু কালচারাল সেন্টার চালু করার উদ্যোগ নেওয়ার কথা বললে কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী ও সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব খলিল আহমদ এতে সম্মতি প্রদান করেন। 

সেন্টার ফর এনআরবি ফাউন্ডেশনরে প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি এম ই চৌধুরী শামীম বলেন, ২০০৪ সালে স্কলার্স বাংলাদেশ সোসাইটি এবং সেন্টার ফর এনআরবি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই সংগঠন  দুটির NRB/PBO-দের (নন রিসেডেন্স বাংলাদেশ/পিপল অব বাংলাদেশি অরিজিন) শিকড়ের সঙ্গে সংযুক্ত করার প্রচেষ্টার একটি গৌরবময় ইতিহাস রয়েছে। এই ২০ বছরে সংগঠনটি তাদের অন্যতম সেতু হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। ২০০৫ , ২০০৭ ও ২০০৯ সালের সম্মেলনের মাধ্যমে বাংলাদেশে এনআরবি/পিবিও-এই শব্দ দুটি ব্যাপক পরিচিতি পায়। যার একটি শব্দ অনাবাসী বাংলাদেশি (এনআরবি) ও অপর শব্দটি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বিদেশি নাগরিক (পিবিও)। এই সম্মেলনের মাধ্যমেই জনতা ব্যাংক এনআরবি শাখা, দেশের তিনটি এনআরবি ব্যাংক, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা পায়। আমাদের দীর্ঘ প্রচেষ্টায় ৩০ ডিসেম্বর প্রবাসী বাংলাদেশি দিবস (NRB Day) জাতীয় প্রবাসী দিবসে রূপ পায়। নি বলেন, এখন থেকে এনআরবি-পিবিও সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলন প্রতি বছর নির্দিষ্ট সময়ে অনুষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সাংবাদিক সাংবাদিক রোকেয়া হায়দার, যুক্তরাষ্ট্রের টেম্পল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ডা. জিয়াউদ্দিন আহমেদ, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. সুচরিতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অনুবাদক আনিসুজ্জামান, কবি শামস আল মোমেন, কবি নাসরিন শাহানা, কানাডা প্রবাসী আহমেদ হোসেন,  সাইয়েদা জায়গিরদার প্রমুখ।

প্রথম এনআরবি/পিবিও সাহিত্য-সংস্কৃতি সম্মেলনের ঘোষণা পাঠ করেন সেন্টার ফর এনআরবি ফাউন্ডেশন ও স্কলার্স বাংলাদেশ সোসাইটির সহপ্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী দিলারা আফরোজ খান রূপা। অনুষ্ঠানে দুটি বইয়ের মোড়ক গ্রন্থ উন্মোচন হয়। একটি শামসুর রাহমানের প্রিয় কবিতা ও আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর সময়ের ঘড়ি।

তিন দিনব্যাপী এনআরবি-পিবিও সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলন চলবে ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এতে সহযোগী হিসেবে রয়েছে বাংলা একাডেমি। অনুষ্ঠানের আয়োজক সেন্টার ফর এনআরবি ফাউন্ডেশন ও স্কলার্স বাংলাদেশ সোসাইটি। আগামীকাল ২৩ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় দিনে শুক্রবার দিন দুই অধিবেশনে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম অধিবেশন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত চলবে। পরের অধিবেশন চলবে বিকাল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এইচ

আরো পড়ুন

banner image
banner image