• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

বিরামপুরে আঞ্চলিক মহাসড়কে রাস্তা দেবে যাওয়ায় দূর্ঘটনার সম্ভাবনা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৬ মে, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১১:৩৮ এএম
বিরামপুরে আঞ্চলিক মহাসড়কে
রাস্তা দেবে যাওয়ায় দূর্ঘটনার সম্ভাবনা

এম, ডি রেজওয়ান আলী, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুর বিরামপুরে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে দূর্ঘটনা এড়াতে নেই কোন তোয়াক্কা। রাস্তা চলাচলে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। এই মহাসড়কটি জনবহুল ও ব্যস্ত রাস্তা। রাস্তটি দেবে যাওয়ায় যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত দূর্ঘটনা। প্রতিদিনই রাস্তা পারাপারে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যানবাহন ও পথচারী এবং শিক্ষার্থী ও পথচারী। বিরামপুর ঢাকা মোড় দিয়ে সকলকে রাস্তা পারাপার হতে হয়। দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কটি বিরামপুর শহরের অনেক ব্যস্ততম একটি সড়ক।

এই মহাসড়কের ওপর দিয়ে প্রতিদিনই অনেক দূরপাল্লার বাস,ট্রাকসহ বিভিন্ন ভারী যানবাহন চলাচল করে। পাকা রাস্তাটির দেবে যাওয়ায় যেকোনো সময় যানবাহন উল্টে গিয়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নীরব ভূমিকা পালন করছে বলে জনসাধারণের অভিযোগ উঠেছে। এই উপজেলায় প্রায় ৫লাখ লোকজন বসবাস করেন। তাছাড়া দিনাজপুর,রংপুর,বগুড়া,জয়পুরহাটসহ বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষের আনাগোনা তো বেশ আছে। তাই প্রতিদিন ব্যস্ত হয়ে পড়ে এই শহরে মহাসড়ক।

যেহেতু এই মহাসড়কে নেই কোন ফুটপাত,গতিরোধক,ফুট ওভারব্রীজ কিংবা জেব্রা ক্রসিং আবারো রাস্তা দেবে যাওয়ায় রাস্তা চলাচলে যেন সাধারনের দুর্ঘটনার সম্ভাবনায় জনসাধারণ বিপাকে পড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এই অবস্থায় প্রতিদিনই শিক্ষার্থী ও পথচারীরা দেবে যাওয়া পাখা রাস্তায় উঁচু নিচু ভেদ করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পার হচ্ছে। সকলেই জীবনকে বিপদাপন্নের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। মহাসড়কটি আড়াআড়ি ভাবে পাড়ি দিয়ে নিজ নিজ গন্তব্যে যেতে হয়। বিশেষ করে স্কুল-কলেজের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন সকালে সড়ক পার হয়ে তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাওয়া এবং বাড়িতে ফেরা হয়ে পড়েছে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

আজ শহরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,কিছু সময় পরপর শিক্ষার্থী ও পথচারীরা হাত উঁচিয়ে গাড়ি থামিয়ে মহাসড়কের রাস্তা পার হয় একদিকে নেই কোন গতি রওনক আবার রাস্তা উঁচুনিচু। এতে প্রায়ই সময়ই সৃষ্টি হয় অনাকাঙ্ক্ষিত যানজট,মানব জটলা,এমনকি ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা। কেউ কেউ হাত না দেখিয়ে গাড়ি না থামিয়ে দৌড়ে রাস্তা পার হয় এতে করে দূর্ঘটনার সম্ভাবনা অনেকাংশে বেশি। বিরামপুর পৌর শহরের মহাসড়কের দু’পাশে রয়েছে অনেক গুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে সড়কের এক দিকে রয়েছে টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট,আদর্শ হাইস্কুল ও আদর্শ মহিলা মাদ্রাসা,আইডিয়াল কেজি স্কুল,শিমুলতলী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং শিমুলতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শহরের অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অন্যদিকে রয়েছে বিরামপুর সরকারি কলেজ,চাঁদপুর ফাজিল মাদ্রাসা,উপজেলা কলেজিয়েট উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজিয়েট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং আমানুল্লাহ আদর্শ বিদ্যা নিকেতন,বিরামপুর মহিলা কলেজ,পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়,বিরামপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এই সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রয়েছে কয়েক হাজার শিক্ষার্থী। বিরামপুর আইডিয়াল কেজি স্কুলের সিনিয়র শিক্ষিকা মর্জিনা বেগম বলেন,পথচারী ও শিক্ষার্থীদের নিরাপদে মহাসড়ক পারাপারের জন্য বিরামপুর শহরে স্কুল-কলেজ এলাকায় ফুট ওভারব্রিজের দাবী আমাদের দীর্ঘদিনের।

এলাকাবাসীর ‍দুর্ভোগ লাঘবে উপজেলা প্রশাসন ও পৌর মেয়র এ বিষয়ে জরুরী ভিত্তিতে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও পথচারীদের রাস্তা পারাপারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আশা করছি। নিতান্তই বিরামপুরে মহাসড়কে রাস্তা দেবে যাওয়া ও ফুটওভার ব্রীজ বিশেষ প্রয়োজন। এবিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগ দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জনসাধারণের।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image