• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

হুমকি দিয়ে আর গদি রক্ষা করা যাবে না: গণতন্ত্র মঞ্চ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১২:৫৬ পিএম
ণসমাবেশে এই হুঁশিয়ারি দেন তারা
জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গণতন্ত্র মঞ্চের গণসমাবেশ

নিউজ ডেস্ক:   যুগপৎ আন্দোলনের অংশ হিসেবে আগামী ২৮ অক্টোবর রাজধানীতে মহাসমাবেশ করবে গণতন্ত্র মঞ্চ । এই সময়ের আগে সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন জোটের নেতারা । তা নাহলে জনগণ ২৮ অক্টোবরের পর সরকারকে গলায় গামছা বেঁধে নামাবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তারা ।

নেতারা বলেন, কোনো হুমকি বা পাহারা বসিয়ে এবার আর গদি রক্ষা করা যাবে না । সম্মানজনক পথে বিদায় নিতে চাইলে অনতিবিলম্বে পদত্যাগের ঘোষণা দিন । অন্যথায় জনগণ ২৮ অক্টোবরের পর সরকারকে গলায় গামছা বেঁধে ক্ষমতা থেকে নামাবে ।

বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে একদফা দাবিতে গণতন্ত্র মঞ্চ আয়োজিত গণসমাবেশে এই হুঁশিয়ারি দেন তারা ।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, আমরা এই সমাবেশ থেকে হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব যাতে শান্তিপূর্ণ ভাবে উদযাপন করতে পারে তার জন্য নিরাপত্তার সব ব্যবস্থা সরকারকেই করতে হবে ।

আগামী ২৮ অক্টোবর ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য মহাসমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করে তিনি বলেন, অবিলম্বে অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করেন, অন্যথায় গণঅভ্যুথানের মুখোমুখি হতে হবে ।

অবরোধ করলে বিএনপির অবস্থা শাপলা চত্বরের চেয়েও করুণ হবে' ওবায়দুল কাদের এমন বক্তব্যের নিন্দা জানিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না । তিনি বলেন, এই সরকার এত হত্যা করেছে তাদের করো কারো বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে । এই সরকার একা হয়ে গেছে । তারা আর ক্ষমতায় থাকতে পারবে না ।

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, সরকার ক্ষমতা হারানোর আতংক থেকে বিরোধী দলের আন্দোলন দমনে হেফাজতের চেয়ে ভয়াবহ ঘটনা ঘটানোর হুমকি প্রদান করছে । এইসব হুমকিতে সরকার তার অবৈধ গদি কোনভাবেই রক্ষা করতে পারবে না ।

ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বলেন, এই ফ্যাসিবাদী সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে । তিনি অবিলম্বে অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করার দাবি জনান ।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডির সিনিয়র সহ- সভাপতি তানিয়া রব বলেন, শেখ হাসিনা সুষ্ঠু ভোট চান না, কারণ উনি ভাল করেই জানেন, সুষ্ঠু ভোট দিলে ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না ।

রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের সাংগঠনিক সমন্বয়ক ইমরান ইমন বলেন, দেশে নাগরিক অধিকার নিয়ে বসবাস করার পরিবেশ নেই । এই অবৈধ সরকার ভোটাধিকার হরণ করে অবৈধ ভাবে ক্ষমতায় রয়েছে ।

গণসমাবেশ শেষে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা এক বিক্ষোভ মিছিল করেন । মিছিলটি জাতীয় প্রেস ক্লাব থেকে শুরু হয়ে পল্টন মোড়ে গিয়ে শেষ হয় ।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকির সভাপতিত্ব এবং দলটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য জুলহাসনাইন বাবুর পরিচালনায় এই গণসমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন- নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল্লাহ কায়সার, জাতীয় সমাজতন্ত্রী দল জেএসসির সহ- সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজ মিয়া, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য আবু হাসান টিপু, গণসংহতি আন্দোলনের রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য মনির উদ্দিন পাপ্পু, ভাসানী অনুসারী পরিষদের যুগ্ম সদস্য সচিব হাবিবুর রহমান হাবিব, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের অর্থ বিষয়ক সমন্বয়ক দিদারুল ভুঁইয়া প্রমুখ ।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

আরো পড়ুন

banner image
banner image