• ঢাকা
  • বুধবার, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৯ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

বিজেপি-কংগ্রেসের পাল্টাপাল্টি অভিযোগে উত্তাল সংসদ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১৫ মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৩৬ পিএম
গৌতম আদানি কতবার প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়েছেন
উত্তাল হয়ে উঠে ভারতে সংসদের দুই কক্ষ

নিউজ ডেস্ক:  বিজেপি ও কংগ্রেসের পাল্টাপাল্টি অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার আবারও উত্তাল হয়ে উঠে ভারতে সংসদের দুই কক্ষ। আদানিকাণ্ড ও কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর মন্তব্য নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক বাগ্‌বিতণ্ডা শুরু হয়। এর জেরে বাজেট আলোচনাসহ কোনো কাজ ছাড়াই লোকসভা ও রাজ্যসভার অধিবেশন মুলতবি করে দেওয়া হয়। গত সোমবারও ঠিক এমনই হয়েছিল। খবর এনডিটিভির।

সরকারপক্ষের দাবি, যুক্তরাজ্য সফরে গিয়ে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী দেশের প্রধানমন্ত্রী, সংসদ ও গণতন্ত্রের অসম্মান করেছেন। দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশি হস্তক্ষেপের আহ্বান জানিয়েছেন। তাঁকে ক্ষমা চাইতে হবে।

কংগ্রেসের জবাব, কিছুতেই রাহুল তা করবেন না। কারণ, তিনি দেশের অসম্মান করেননি। সরকার যেভাবে গণতন্ত্রকে হত্যা করছে, তিনি তা তুলে ধরেছেন। দেশের অসম্মান কেউ যদি করে থাকেন, তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজে করেছেন। বহুবার বিদেশে গিয়ে তিনি বলেছেন, ৭০ বছরে দেশটা রসাতলে গিয়েছিল। তিনি টেনে তুলেছেন। অতএব ক্ষমা চাইতে হবে প্রধানমন্ত্রীকেই।

শিল্পপতি গৌতম আদানি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্তে যৌথ সংসদীয় কমিটি (জেপিসি) গঠনের দাবি তোলেন বিরোধী সাংসদরা। মোদির ‘ঘনিষ্ঠ’ আদানি সরকারি মদতেই আর্থিক অনিয়ম চালিয়েছেন বলে অভিযোগ তুললেন তাঁরা।

ভারতবিরোধিতায় ‘আন্তর্জাতিক চক্রান্ত তত্ত্ব’ তুলে ধরে বিজেপি কংগ্রেসকে কোণঠাসা করতে সচেষ্ট। বিরোধীদের ধারণা, এটা তারা করছে আদানি ইস্যু থেকে দৃষ্টি এড়াতে। হিনডেনবার্গ প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে বহু ক্ষেত্রে আদানি গোষ্ঠী লাভবান হয়েছে।

লোকসভায় রাহুল সরাসরি এ কথাও জানতে চেয়েছিলেন, গৌতম আদানি কতবার প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়েছেন।

বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও ইসরায়েল সফরে আদানি গোষ্ঠীর জন্য প্রধানমন্ত্রী মোদির তদবিরের সুস্পষ্ট অভিযোগও উঠেছে। তদন্তের জন্য বিরোধীদের সংসদীয় কমিটি গঠনের দাবি এড়াতেই ইংল্যান্ডে রাহুলের বক্তব্যকে বিজেপি বড় করে তুলে ধরতে চাইছে বলে কংগ্রেসের ধারণা। সে কারণে লোকসভার সঙ্গে রাজ্যসভায়ও বিজেপি সরব।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

আরো পড়ুন

banner image
banner image