• ঢাকা
  • শনিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ১৩ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

নান্দাইলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে  ১১টি দোকান পুঁড়ে ছাঁই


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৫ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৭:৪৮ পিএম
নান্দাইলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে  
অগ্নিকান্ডে দোকান পুঁড়ে ছাঁই

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহ জেলার  নান্দাইল পৌরসভার পুরাতন নান্দাইল বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে  ২ট গুদাম ঘর সহ ১১টি দোকান ঘর পুঁড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার ( ১৫ মার্চ) দিবাগত রাত ২ টার দিকে এ অগ্নীকান্ডের   ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে নান্দাইল,ঈশ্বরগঞ্জ, হোসেনপুর ও কিশোরগঞ্জের ফায়ার সার্ভিসের ৪টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয় লোকদের সহায়তায়  প্রয় ২ ঘন্টা চেষ্ঠা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

অগ্নিকান্ডে  ২টি গুদাম ঘর সহ ১১টি দোকানের প্রায় দেড় কোটি  টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে  ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা  জানায়। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন বলেন এই মুহুর্তে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান জানানো সম্বব না  তদন্ত করে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বলা যাবে।

ফায়ার সার্ভিস ও ব্যবসায়ী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে  নান্দাইল বাজারে  আগুনের সূত্রপাত হয়। এতে হু হু ক করে আগুন  চারিদিকে ছড়িয়ে   পড়ে। আগুনে বজারের বীরেন্দ্র চন্দ্র সাহার গুদাম ও দোকান ঘর, গোবিন্ধ সাহার পাইকারী ও খচরা মনিহারী দোকানের মালামালের গোদাম ঘর ,জুয়েল মিয়ার ইলেকট্রিক মালামালের দোকান, ইসমাইলের মনিহারী দোকান, সুমনের ফলের দোকান, মতিন মীর ও দবির উদ্দিনের জুয়েলারি, রফিকুল ইসলামের রাসায়নিক ও কীটনাশকের দোকান,মতিন ডাক্তারের  হোমিওপ্যাথিক ঔষধের দোকান, হেলাল মিয়ার  (রেডিমেট)   কাপড়ের দোকান,  তুহিন মিয়ার ঔষধ ও বিকাশের দোকান পুঁড়ে ছাঁই হয়ে যায়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পুঁড়ে যাওয়া ২টি গুদাম ঘর সহ ১১টি দোকানে ছড়িয়ে ছিঁটিয়ে রয়েছে পুড়ে যাওয়া জিনিসপত্র।একটি ফলের দোকানে বিভিন্ন রকমের ফল পুঁড়ে ধৌঁয়া বের হচ্ছে। রাসায়নিক কীটনাশকের দোকানগুলোতে কীটনাশক পুঁড়ে বিষাক্ত গন্ধ বের হচ্ছে। জুয়েলারি দোকানগুলোর পুঁড়ে যাওয়া টিন,শার্টার খুঁলে রাখা হচ্ছে। ভোর থেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষজন পুঁড়ে যাওয়া দোকান ঘর দেখতে ভীড় করেছে।

এদিকে আগুন লাগার পরপরই আগুন নিয়ন্ত্রণে উপজেলা আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম শাহান ও নান্দাইল পৌরসভার মেয়র রফিক উদ্দিন ভুইয়া ঘটনা স্থলে থেকে আগুন নেভাতে সহযোগিতা করেন। নান্দাইলের সংসদ সদস্য পরিকল্পনামন্ত্রী মেজর জেনারেল (অবঃ) আব্দুস সালাম আরসি ডিএস পিএসসি  ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিকদের ধৈর্য ধারনের আহবান জানিয়েছেন। তাছাড়া তিনি নেতাকর্মীদের ক্ষতিগ্রস্থ ব্যাবসায়ীদের পাশে থাকার নির্দেশও দেন ।

নান্দাইল ফায়ার সার্ভিসের ফায়ার ফাইটার ফখরুল আমিন বলােন আগুন লাগার খবর পেয়েই তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে ৪ টি ইউনিটের ২ ঘন্টার চেষ্ঠায় আগুন নেভাতে সক্ষম হই। গুদাম ঘর সহ ১১ টি দোকানের তদন্ত করে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানানো হবে। এব্যাপারে  নান্দাইল মডেল থানার অফিসার  ইনচার্জ মোঃ আঃ মজিদ বলেন আগুন লাগার বিষয়টি নাশকতা না কি তা ক্ষতিয়ে দেখা হবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image