• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৪ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

যুব সংগঠক এনামুলকে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক চায় ত্যাগি নেতারা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১১:৩৭ এএম
যুব সংগঠক এনামুলকে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক চায় ত্যাগি নেতারা
দক্ষ যুব সংগঠক এনামুল করিম

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ দুর্দিনের পরিক্ষিত ও ছাত্রলীগের ত্যাগী নেতা, দক্ষ যুব সংগঠক এনামুল করিমকে সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক হিসেবে দেখতে চায় তৃণমুলসহ দলের ত্যাগি নেতারা । বেলকুচিতে দক্ষ যুব সংগঠক এনামুল করিম ছাত্রলীগের তৈরি একজন ত্যাগী ও কর্মী বান্ধব নেতা। তিনি রাজপথের একজন পরিক্ষিত যোদ্ধা । বেলকুচি উপজেলার প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে শুরু করে উপজেলায় তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে। বিপদে আপদে তাকে পাশে পয় দলের সাধারন কর্মীরা।

জানা যায়, বেলকুচির রাজনীতিতে এনামুল করিম   এক দক্ষ যুব সংগঠক, কর্মী বান্ধব, ত্যাগী,দুর্দিনের পরীক্ষিত যুবলীগ এক নেতার নাম। ছাত্রজীবন থেকে তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে তৃনমূল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করে যাচ্ছেন।

জেলা যুবলীগের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উপজেলা যুবলীগের পদ প্রত্যাশীদের বায়োডাটা জমা আহ্বান করার পর থেকে ওয়ার্ড পর্যায় থেকে শুরু করে দলের সর্বোচ্চ নেতাদের ভিতরে চলছে এখন আহবায়ক ও যুগ্ন আহবায়কদের নিয়ে আলোচনা। এরই মধ্য যুবলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে তৃনমূল ও ত্যাগি নেতাদের পছন্দের গুড বুকে একটি নাম এনামুল করিম । ত্যাগি কর্মীরা যুবলীগের আহবায়ক হিসেবে তাকে দেখতে চায়।

এনামুল করিম একজন নিবেদিত আওয়ামী পরিবারের সন্তান ও তার চাচা মৃত আজাদ খসরুর হেলাল ছিলেন একজন দক্ষ সংগঠক ছিলেন ৩ বারের উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

এনামুল করিম ১৯৯৭ সালে বেলকুচি ডিগ্রি কলেজ ছাত্র লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে কলেজ ছাত্রলীগকে সু সংগঠিত করে পরবর্তীতে ২০০০ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়। ২০১৪ ও ২০১৮ সালের সংসদ নির্বাচনে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য হয়ে নৌকা প্রতীককে এই এলাকা থেকে বিপুল ভোটে বিজয় করে।

১৯৯১-১৯৯৫ এ খালেদা হটাও আন্দোলনে অংশ গ্রহনকারী ছাত্র লীগের সক্রিয় কর্মী বিভিন্ন মামলা হামলা হয় তার উপর। ২০১৪ সালে গনতন্ত্র রক্ষায় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি জামাতের সকল অবরোধ উপক্ষে ও প্রতিহত করে নির্বাচনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে। তিনি নিজ উদ্যোগে কেন্দ্রীয়  যুবলীগের ঘোষিত সকল কর্মসূচি সক্রিয় ভাবে পালন করে যাচ্ছে।

এনামুল করিম সুবর্ণসাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য,দেলুয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও সুবর্ণসাড়া সবুজ সেনা সংঘের বর্তমান সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছে।

বেলকুচি উপজেলা যুবলীগের বড় একটি সূত্রে বলেন, উপজেলা যুবলীগের ভাল একটি কর্মীবান্ধব এর নাম এনামুল করিম । যুবলীগ নেতা কর্মীদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা, শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার অনন্য স্থান দখল করে আছেন এই নেতা । তারা আরও বলেন এনামুল করিম যদি আহবায়ক হয় বিগত দিনের কর্মীবান্ধব একজন যুবলীগের আহবায়ক পাবেন এমনটা আশা করছেন তারা। এনামুল করিম  রাজনীতির পাশাপাশি অসংখ্য সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছে । এমনকি বেলকুচিকে মাদক সন্ত্রাস ও যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে মানবাধিকার রক্ষায় তার রয়েছে জোরালো কন্ঠস্বর। তার এই বর্ণাঢ্য ছাত্র ও যুব রাজনীতির ক্যারিয়ারে বিএনপি, জামায়াত ও সেনা শাসক দ্বারা অসংখ্য বার হামলা, মামলা ও নির্যাতনের শিকার হলেও পিছপা হননি তিনি। তার এই ত্যাগ দল অবশ্যই মূল্যায়ন করবেন।

এনামুল করিম বলেন, আমাকে যদি দল চায় তাহলে আমি যুলীগের আহবায়ক পদে আছি আমার ব্যক্তিগত কিছু চাওয়ার নেই। দলের ত্যগি নেতারা আমাকে বারবার বলেন, এনামুল তুমি জীবনে অনেক কিছুৃ ত্যাগ করেছো। এখন তুমি বেলকুচি উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক হও। এই জন্য আমি আহবায়ক পদে পদ প্রত্যাশী । আমি বাংলাদেশ আওয়ামী পরিবারের একজন সদস্য বেলকুচির সকল রাজনৈতিক মামলায় অন্যায় ভাবে আমাকে জড়িয়ে হয়রানির শিকার হয়েছি বারবার।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image