• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

রানি এলিজাবেথ নন, পার্লামেন্টের অনুষ্ঠানে প্রিন্স চার্লস


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১১ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:১৬ পিএম
পার্লামেন্টের অনুষ্ঠানে প্রিন্স চার্লস
পার্লামেন্টে প্রিন্স চার্লস

ডেস্ক রিপোর্টার: ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ৫৯ বছরের মধ্যে এই প্রথমবার রানি এলিজাবেথ নন, বাৎসরিক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করলেন প্রিন্স চার্লস।

রানি এলিজাবেথের বয়স এখন ৯৬ বছর। বাকিংহাম প্যালেস থেকে জানানো হয়েছে, রানির এপিসোডিক মোবিলিটি প্রবলেম হয়েছে, যার অর্থ, কখনো কখনো তার চলাফেরা করতে অসুবিধা হয়। চিকিৎসাবিজ্ঞান অনুসারে, এই সমস্যা হলে, কখনো তিনি স্বাভাবিকভাবে হাঁটবেন, কখনো তার চলাফেরা করতে অসুবিধা হবে।

তাই রানি এলিজাবেথের জায়গায় ৭৩ বছর বয়সি প্রিন্স চার্লস পার্লামেন্টে এসেছিলেন তার প্রতিনিধি হয়ে। তিনিই সিংহাসনে বসেন। পার্লামেন্টে ভাষণ দেন। সরকারের হয়ে ৩৮টি বিল পেশ করেন।

ব্রিটিশ সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, তারা স্বাস্থ্য-ব্যবস্থার উন্নতি করবে, অপরাধ কমাবে এবং দেশের অর্থনীতির হাল ফেরাবে। সরকারের তরফে প্রিন্স চার্লস যে ভাষণ পড়েছেন, তাতে তিনি বলেছেন, সরকার অর্থনীতিকে আরো সুদৃঢ় করবে, আর্থিক বৃদ্ধি নিশ্চিত করবে, উচ্চ-দক্ষতার ও উচ্চ-আয়ের চাকরির সুযোগ তৈরি করবে।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ঘোষণা, 'সরকার আসল বিষয়গুলির উপর নজর দেবে। যেদিন থেকে আমি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়েছি, সেদিন থেকেই আমার মিশন স্পষ্ট করে দিয়েছি। সরকার আসল বিষয়গুলি নিয়ে দিন-রাত কাজ করে যাবে।

জনসন বলেছেন, কোভিড ও রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাত বিশ্ব অর্থনীতিতে বিপুল প্রভাব ফেলেছে।

তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, যেখানে সাহায্য করা দরকার, সেখানেই সরকার তা করবে। তবে তিনি তার পরিকল্পনা নিয়ে বিস্তারে কিছু বলেননি।

রানির অনুপস্থিতি

রানি এলিজাবেথ তার ৭০ বছরের শাসনে এর আগে মাত্র  দুইবার এই অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন। ১৯৫৯ ও ১৯৬৩ সালে, যখন তিনি গর্ভবতী ছিলেন। কিন্তু এবার তিনি স্বাস্থ্যের কারণে পার্লামেন্টে উপস্থিত থাকতে পারলেন না।

প্রথা হলো, রাজা বা রানি বাকিংহাম প্যালেস থেকে ঘোড়ার গাড়িতে শোভাযাত্রা করে পার্লামেন্টে আসেন। এই বছর প্রিন্স চার্লস গাড়িতে করে পার্লামেন্টে এসেছেন। তার মাথায় রাজমুকুটও ছিল না। রাজমুকুটটি একটি চেয়ারে রাখা ছিল। অবশ্য রাজমুকুটের ওজন বেশি বলে রানিও কয়েক বছর তা পরেননি।

প্রিন্স চার্লসের সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী ক্যামিলা ও ছেলে প্রিন্স উইলিয়াম।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আর্ন্তজাতিক বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image