• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৮ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

পদ্মা সেতু নির্মাণে প্রধানমন্ত্রীকে উৎসর্গ করা হবে সিআইএফএফ ২০২২


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:২৮ পিএম
পদ্মা সেতু নির্মাণে প্রধানমন্ত্রীকে উৎসর্গ করা হবে
সিআইএফএফ

ডেস্ক রিপোর্টার: দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম মর্যাদাবান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশের সিনেমাকিং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। আগামি ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য সিআইএফএফ ৩য় অধিবেশনের জন্য প্রায় ১০০ দেশের হাজারের বেশি চলচ্চিত্র জমা পড়েছে ।

উৎসব পরিচালক মনজুরুল ইসলাম মেঘ জানিয়েছেন, দেশের সবচেয়ে বড় মেগাপ্রজেক্ট বাস্তবায়ন করায় এই বারের উৎসব উৎসর্গ করা হবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে। এই উৎসবের মাধ্যমে শতাধিক দেশের চলচ্চিত্র নির্মাতা, প্রযোজক, অভিনেতা-অভিনেত্রী, কলাকুশলীদের কাছ স্লোগানের মাধ্যমে তুলে ধরা হবে "বিশ্বয়কর পদ্মা সেতু স্বপ্নেবুনা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা"।

উৎসব পরিচালক আরও বলেন, এইবার উৎসবের থিম সাজানো হয়েছে পদ্মা সেতু, উৎসবের পোষ্টারে পদ্মা সেতুকে তুলে ধরতে চাই, তাই পোষ্টার ডিজাইনারদের কাছে থেকে আমরা ডিজাইন আহ্বান করতেছি, সবচেয়ে সেরা ডিজাইনের পোষ্টারকে উৎসবের অফিসিয়াল পোস্টার হিসেবে গ্রহণ করা হবে এবং ডিজাইনারকে সম্মানিত করা হবে উৎসবে। বিস্তাতির জানা যাবে উৎসবের অফিসিয়াল ওয়েব সাইট ও সোস্যাল মিডিয়া পেজে।

মনজুরুল ইসলাম মেঘ আরো জানান, ২য় সিনেমাকিং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০২১ ছিলো বাংলাদেশে এ যাবতকালে অনুষ্ঠিত সবচেয়ে বেশি দেশের অংশগ্রহনকারী কোন উৎসব। বাংলাদেশের পঞ্চাশ বর্ষপূর্তির এই উৎসবে বিশ্বের ১২১ টি দেশ অংশগ্রহণ করেছিলো। উৎসবটি উৎসর্গ করা হয়েছে “বীর মুক্তিযোদ্ধাদের”। ২য় সিনেমাকিং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ৪ টি আন্তর্জাতিক সেমিনারও অনুষ্ঠিত হয়েছিলো “চলচ্চিত্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আন্তর্জাতিক সেমিনার”, “চলচ্চিত্রে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ আন্তর্জাতিক সেমিনার”, “ভারত বাংলাদেশের বন্ধুত্বের পঞ্চাশ বৎসর আন্তর্জাতিক সেমিনার”, “সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবর্ষ আন্তর্জাতিক সেমিনার”। উৎসবের উদ্বোধন করে ছিলো শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি। সমাপনী অধিবেশনে প্রধান অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম এমপি।

মেঘ আরো জানান, বঙ্গবন্ধু মাত্র ৫৪ বছর পৃথিবীতে ক্ষনজন্মা হিসেবে ছিলেন, সেই স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে ৫৪ টি দেশের চলচ্চিত্র নিয়ে মুজিব বর্ষে ১ম সিনেমাকিং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০২০ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে উৎসর্গ করা হয়েছিলো। করোনা মহামারীর কারণে ভার্চুয়ালী উৎসবের উদ্বোধন করেছিলেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা, অধ্যাপক ড. মতিন রহমান।

উল্লেখ্য, সুস্থধারার চলচ্চিত্র প্রদর্শন, বাংলা চলচ্চিত্র সারাবিশ্বে পরিচিত করতে এবং বিভিন্নি দেশের সংস্কৃতির সাথে বাংলাদেশের দর্শকদের পরিচয় করিয়ে দিতে ২০১৮ সালে যাত্রা শুরু করেছিলো সিনেমাকিং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব, তবে উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২০২০ সাল থেকে। বঙ্গবন্ধুর চেতনায় হৃদয়ে দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধ, বাংলা চলচ্চিত্র বিশ্বজয় করবে এই স্লোগানেই এগিয়ে যাচ্ছে সিনেমাকিং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব।

ঢাকানিউজ২৪.কম / মনজুরুল ইসলাম মেঘ/কেএন

বিনোদন বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image