• ঢাকা
  • বুধবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ২১ ফেরুয়ারী, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

বিজয় দিবস উপলক্ষে সাংবাদিক ইউনিয়নের আলোচনা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০১:০২ পিএম
সাংবাদিক ইউনিয়নের আলোচনা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা 
বিজয় দিবস উদযাপন

মিঠামইন (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি : ১৬ ডিসেম্বর বাঙালির হাজার বছরের স্বাধীনতা সংগ্রামের পূর্ণতা প্রাপ্তির ঐতিহাসিক এক দিন মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ের ৫২ বছর পূর্তির মাহেন্দ্রক্ষণ ৫৩তম মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে কিশোরগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের উদ্যোগে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শনিবার সকালে জেলা সমবায় অফিসের ২য় তলায় জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের কার্যালয়ে এ আলোচনা সভা ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আহমাদ ফরিদ। 

জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম তুষার এর পরিচালনায় আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন দৈনিক নয়া দিগন্তের বিজ্ঞাপন ম্যানেজার এবিএম জাকারিয়া,জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি তারেক মিনহাজ কোরায়শি ছোটন,সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন আকাশ,সাংগঠনিক সম্পাদক রায়হান জামান,সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আল আমিন,প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ রুবেল,দপ্তর সম্পাদক ইমরান হোসেন,ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা সানজিদ হক,শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক আতাউল হাসান দিনার,সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক সাদেক আহমেদ,সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক রিফাত ইসলাম,পাঠাগার ও পুস্তক বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, সহযোগী সদস্য শামিম সহ আরো অনেকেই।

আলোচনাসভায় বক্তারা বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধ শেষে ১৯৭১ সালের আজকের দিনটিতে জাতির স্বাধীনতা সংগ্রামের বিজয় এসেছিল। দখলদার পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে এই এদিনটিতেই স্বাধীনতার রক্তিম সূর্যালোকে উদ্ভাসিত হয়েছিল স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। আজকের দিনটি তাই জাতির শৌর্যবীর্য এবং বীরত্বের এক অবিস্মরণীয় গৌরবময় দিন। বীরের জাতি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করার দিন। পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ নামে একটি স্বাধীন ভূখন্ডের নাম জানান দেওয়ার দিন। তাই তো বিজয় দিবসের ৫২ বছর পূর্তির দিনে আজ বিজয়োল্লাসে ভাসবে দেশ, আনন্দে উদ্বেলিত হবে গোটা জাতি। রাজধানী ঢাকা থেকে প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত উদযাপিত হবে দিনটি।

উৎসবের সমারোহে জাতি শ্রদ্ধাবনত চিত্তে স্মরণ করবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতাসহ মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের সব শহীদকে। আলোচনাসভা শেষে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এ ছাড়াও মিঠামইন উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্বের পুস্পস্তবক অর্পন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ এরশাদ আলী ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ। মুক্তিযোদ্ধাদের সংর্বধনা শেষে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরুষ্কার বিতরন করেন।
 

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image