• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

চাটমোহরে ১৫ হাজার মে.টন পেঁয়াজ উৎপাদনের সম্ভাবনা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ২৯ মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০১:৫০ পিএম
চাটমোহরে ১৫ হাজার মে.টন
পেঁয়াজ উৎপাদনের সম্ভাবনা

হেলালুর রহমান জুয়েল, চাটমোহর (পাবনা) সংবাদদাতা: চলতি মৌসুমে পাবনার চাটমোহর উপজেলায় প্রায় ১৫ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ উৎপাদনের সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যে কৃষক জমি থেকে কন্দ পেয়াজ উত্তোলন করেছেন। চারা পেঁয়াজ রোপণের কাজও শেষ করেছেন তারা। বীজ উৎপাদনের জন্য যে সকল কৃষক কন্দ লাগিয়েছিলেন তাদের খেত ভরে গেছে শ্বেত শুভ্র ফুলে। আগামি কিছু দিনের মধ্যে পেঁয়াজ ফুল থেকে বীজ সংগ্রহের কাজ শুরু করবেন তারা।

চাটমোহর কৃষি অফিস সূত্র জানায়,চলতি মৌসুমে চাটমোহরে মোট ১ হাজার ২১১ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে ৫শ ৯০ হেক্টর চারা পেঁয়াজ,৬শ ২০ হেক্টর কন্দ পেঁয়াজ এবং ১ হেক্টর জমিতে বীজ উৎপাদনের জন্য পেঁয়াজের চাষ হয়েছে। ইতিমধ্যে কন্দ পেঁয়াজ জমি থেকে উত্তোলন করেছেন কৃষক। সম্প্রতি চারা পেঁয়াজ রোপনের কাজও শেষ হয়েছে। আবহাওয়া পেঁয়াজ চাষের অনুকূলে থাকায় হেক্টর প্রতি প্রায় ১৪ মেট্রিক টন ফলন পাওয়া গেছে। হেক্টর প্রতি চারা পেঁয়াজের গড় ফলন পাওয়া যায় প্রায় ১১ মেট্রিক টন। সে হিসেবে কন্দ ও চারা পেয়াজ মিলে চাটমোহরে প্রায় ১৫ হাজার টন পেঁয়াজ উৎপাদনের সম্ভাবনা রয়েছে।

উপজেলার কাটেঙ্গা গ্রামের কৃষক হায়দার আলী ইতিমধ্যে পেঁয়াজ ও পেঁয়াজ বীজ উৎপাদনে সফলতা দেখিয়েছেন। গত উনিশ বছর যাবৎ পেঁয়াজ চাষ করে আসছেন তিনি। করছেন বীজ উৎপাদনও। এ বছর কন্দ পেঁয়াজে প্রায় ৪০ মণ হারে ফলন পেয়েছেন তিনি। তিনি দেড় বিঘা জমিতে পেয়াজ বীজ উৎপাদন করছেন। হায়দার আলী জানান,কন্দ থেকে বীজ উৎপাদনে জমি চাষ,কন্দ,সার, বালাই নাশক,সেচ,শ্রমিক খরচ সব মিলিয়ে প্রায় ৫০ হাজার টাকা খরচ হয়। প্রাকৃতিক দূর্যোগ না ঘটলে বিঘা প্রতি একশত কেজি পেঁয়াজ বীজ পাওয়া যায়। স্বাভাবিক সময়ে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বীজের দাম থাকে দুই হাজার টাকার কিছু কম বেশি। তবে কোন কোন বছর প্রতি কেজি পেঁয়াজ বীজের দাম ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে যায়। তখন বেশি লাভ হয় তাদের।

চাটমোহর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এ.এ মাসুম বিল্লাহ জানান, পেঁয়াজ চাষ স¤প্রসারণে কাজ করছি। অনেক চাষী সরকারি সহায়তা পাচ্ছেন। চাটমোহরে সাধারণত তাহেরপুরী এবং কলস নগর জাতের পেঁয়াজ চাষ হয়ে থাকে। চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় কন্দ পেঁয়াজ চাষীরা ভাল ফলন পেয়েছেন। চারা পেঁয়াজ রোপন শেষ হয়েছে। বীজ উৎপাদনকারী চাষীরা কিছু দিনের মধ্যে পেঁয়াজ বীজ সংগ্রহ শুরু করবেন। ভাল দাম পাওয়ায় লাভবান হচ্ছেন কৃষক।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image