• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১২ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

খাগড়াছড়িতে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের "বাকীর হাট" উদ্বোধন 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:৪৬ পিএম
খাগড়াছড়িতে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের "বাকীর হাট" উদ্বোধন 
উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো: সহিদুজ্জামান

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: "যা প্রয়োজন এখন বাকীতে নিন, পরে সামর্থ্য হলে অন্য কোন অভাবীকে ফেরত দিন" এই স্লোগানে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে "খাগড়াছড়িতে বাকীর হাট " নামে সুপারশপ  অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে মূলনীতি ছিল "বাকী ভেবে নিয়ে যান,পরে অভাবীকে দাম দিয়েন"।

আজ ২৬সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে খাগড়াছড়ি জেলা শহরস্থ অফিসার্স ক্লাবে এ বাকীর হাট সুপারশপ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের বোর্ড সদস্য মো: জামাল উদ্দিন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বাকীর হাটের শুভ উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো: সহিদুজ্জামান।

এ "বাকীর হাট" সুপারশপ থেকে নির্দিষ্ট টোকেন নিয়ে দুস্থ ও অসহায় মানুষজন নিজেদের চাহিদা অনুযায়ী ৬০০টাকার ভিতরে বাকীতে বাজার করেছেন। এ সুপারশপে ২১টি পণ্যের সমাহার ছিলো। এ সকল পণ্যে যেমন চাউল প্রতি কেজি ৫০টাকা, পেন্সিল ১ডজন ১২০টাকা,কলম প্রতি ডজন ৬০টাকা, ডিম প্রতি ডজন ১০০টাকা,খাতা প্রতি পিস ৫০টাকা,মুরগী প্রতি পিস ২৫০টাকা, চিনি প্রতি কেজি ১৪৫টাকা, এংকর ডাল প্রতি কেজি ৭০টাকা, পিয়াজ প্রতি কেজি ৭০টাকা, রুই মাছ(বড়) প্রতি পিস ২৫০টাকা, আলু প্রতি কেজি ৪৫টাকা, মিষ্টি কুমড়া প্রতি পিস ৫০টাকা,লাউ প্রতি টিস ৫০টাকা,জুতা প্রতি জোড়া ১২০টাকা,ছাতা প্রতি পিস ২৫০টাকা,টি-শার্ট প্রতি পিস ৮০টাকা,লবণ প্রতি কেজি ৪২টাকা,দেশী মসুর ডাল ১২০টাকা,অরেঞ্জ বিস্কুট প্রতি প্যাকেট ৫০টাকা,নুডলস প্রতি প্যাকেট (বড়) ১২৫ টাকা,সুজি প্রতি প্যাকেট ৪৫টাকা,আটা প্রতি দুই কেজি ১২০টাকা,সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৭৪টাকা দরে। 
উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো: সহিদুজ্জামান বলেন,বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের আজকের এই "বাকীর হাট " সুপারশপ  অত্যন্ত ভালো  উদ্যোগ। বিদ্যানন্দের এই সকল মানবিক কার্যক্রমগুলো দেখে আমি খুবই আনন্দিত। সর্বোপরি বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের এই কনসেপটি খুবই চমৎকার।

দীঘিনালা থেকে আসা এন্টন চাকমা মেয়েকে একটি স্কুল ব্যাগ কিনে দিতে পেরে খুব খুশি। 

খাগড়াছড়ি সদর থেকে সুপারশপে বাজার করতে আসা রাজিয়া বেগম বলেন,আজকে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের সুপারশপে এসে নিজের পছনন্দ মতো মুরগী,ডিম,নুডলস,আলু,চাউল পেয়ে আমি অনেক খুশি। 

পানছড়ি থেকে বাজার করতে আসা মিথুই চিং মারমা বলেন,বাকীর হাটে এসে বাজার করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত।
বিদ্যান্দ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবক মুবারক হোসেন বলেন,খাগড়াছড়ি জেলার প্রায় তিনশত অস্বচ্ছল পরিবার তাদের নিজেদের পছন্দ মতো  বাজার করেছেন সম্পূর্ণ বাকীতে। তারা প্রত্যেকে ৬০০টাকার পন্য নিতে পেরেছেন। 

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের বোর্ড সদস্য মো: জামাল উদ্দিন বলেন,ভোজ্যতেল, চাল-ডালসহ ২১ টি পণ্যের সমাহার ছিল সুপারশপে। নির্দিষ্ট টোকেন নিয়ে দুস্থ ও অসহায় মানুষজন নিজেদের চাহিদা মতো বাজার করেছেন।। মুলত দুস্থদের পাশে দাঁড়ানোর উদ্দেশ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে এই বাজারের আয়োজন করা হযেছেশশ

এ সময় খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: শানে আলম, উপজাতীয় শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স'র নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রাশেদুল হক,সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রদীপ চৌধুরী,প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের মুহাম্মদ,খাগড়াছড়ি টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনেরসাধারণ সম্পাদক এইচ এম প্রফুল্ল, বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন খাগড়াছড়ব ব্রাঞ্চ'র ভলান্টিয়ার মনিস্বপন দেওয়ান(জুনো),বিভিন্ন ব্রাঞ্চের স্বেচ্ছাসেবকসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image