• ঢাকা
  • শনিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০২ জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

মিঠামইনের কেওয়ারজোর বাড়ি ঘরে হামলা-লুটপাট, ভাংচুর


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৩১ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:২১ পিএম
কেওয়ারজোর বাড়ি ঘরে হামলা, লুটপাট, ভাংচুর
অপরাধ

মিঠামইন প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ:  মিঠামইন উপজেলার কেওয়ারজোর ইউনিয়নের রহমতপুুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত সোমবার ৩০ মে বিকালে একই গ্রামের ভোট্টু মিয়ার বাড়িতে প্রতিপক্ষ  অহেদ মিয়ার লোকজন ইঞ্জিন চালিত ট্রলার নিয়ে বাড়ি ঘেড়াও করে হামলা চালিয়ে লুটপাট সহ ঘর দরজা, গাছপালার ব্যাপক তান্ডব চালানোর অভিযোগ পাওয়া গিয়াছে।

এসময় প্রতিপক্ষ অহেদ মিয়ার লোকজনের আক্রমণের শিকার হয়ে পরিবারের ৩ জন সদস্য গুরুতর আহত হয়।

আহতরা হলেন, ভোট্টু মিয়া (৪০), আশিক মিয়া (৩৮),সুফিয়া আক্তার (৩৫) কে প্রথমে মিঠামইন উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদেরকে আশংকাজনক অবস্থায় কিশোরগঞ্জ সৈয়দ নজরুল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।এ ব্যাপারে  আহত ভোট্টু মিয়ার বড় ভাই আবেদ মিয়া মিয়া বাদী হয়ে গতকাল মঙ্গলবার মিঠামইন থানায় ১৩ জন কে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ অহেদ মিয়া গংদের সাথে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে  আসিতে ছিল। এবং পূর্বে ও অহেদ গংদের বিরুদ্ধে ভোট্টু মিয়া আরও ৩ টি মামলা দায়ের করেছেন। বাদী আবেদ মিয়া জানান, তাদের ৩০ শতাংশ জায়গা দখল করে জোর পূর্বক দুটি ঘর উঠাইয়া রেখে ফেলেছে। সম্প্রতি বিগত ২/৩/২০২২ ইং তারিখ আরও একটি মামলা হয় অহেদ গংদের বিরুদ্ধে। ঐ মামলায় জামিনে এসে তারা বাদীকে নানানভাবে হুমকি সহ ক্ষিপ্ত হয়ে এ হামলা ও লুটপাট চালায়।

বাদী আরও জানান, অহেদ মিয়ার গংরা নগদ অর্থ স্বর্ণালংকার ও মালামাল সহ ৪ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা নিয়ে যায়। তাদের তান্ডবে বাড়ি ঘরে কোনো গাছপালা নেই। মামলা করে তাদের হুমকির ভয়ে বাদী এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

অভিযুক্ত অহেদ মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, উভয় পক্ষেই মারপিট হয়েছে। বাড়ি ঘরে কোনো হামলা হয়নি। তারা নিজেরা মামলা সাজানোর জন্য এসকল করছে।তাদের জায়গায় কোনো ঘর উঠায়নি। মিঠামইন থানার ওসি জাকির রাব্বানীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এস,আই শুক্কুর আলীকে মামলার তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / বিজয়কর রতন/কেএন

অপরাধ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image