• ঢাকা
  • বুধবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৫ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

মেডিকেল ডিপ্লোমা টেকনলোজি কোর্সের ভর্তি বন্ধ ২ বছর


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:১৪ পিএম
মেডিকেল ডিপ্লোমা টেকনলোজি কোর্সের ভর্তি বন্ধ
ডিপ্লোমা মেডিকেল টেকনলোজি

ডেস্ক রিপোর্টার: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এর প্রতিষ্ঠানগুলোতে দুই বছর ধরে বন্ধ রয়েছে শিক্ষার্থী ভর্তি। যার কারনে বন্ধ হতে বসেছে ডেন্টাল, প্যাথলজিসহ ৮টি বিষয়ে মেডিকেল ডিপ্লোমা টেকনোলজি কোর্স চালানো ৫শ’র বেশি প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিদ্যমান নীতিমালায় নতুন করে নিবন্ধনে রাজি নয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, নীতিমালা না মানলে শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে না।

দেশের স্বাস্থ্যখাতে মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে ২০০৫ সাল থেকে কারিগরি বোর্ডের অধীনে ডেন্টাল, প্যাথলজি, রেডিওলজি অ্যান্ড ইমেজিং-সহ ৮টি বিষয়ে ডিপ্লোমা ইন মেডিকেল টেকনোলজি কোর্স চালু করা হয়। বোর্ডের নিবন্ধন নিয়ে এসব কোর্স চালিয়ে আসছিল ৫শ’র বেশি প্রতিষ্ঠান।
 
শুরু থেকেই নানা সমস্যার মধ্য দিয়ে চলছিল এই শিক্ষা কার্যক্রম। তবে, ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে এসব প্রতিষ্ঠানকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে দিলে নতুন জটিলতা তৈরি হয়। এতেই দুই বছর ধরে বন্ধ রয়েছে এসব প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম।
 
উত্তরা ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজির পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, একটি অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান কী করে আবার অনুমোদন নেয়, তাহলে এটা তো ট্রান্সফার করা হইলো না।
 
কানাডা-বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজির পরিচালক সোহরাব হোসেন বলেন, আমরা যখন দেখলাম পর পর দুইটা সেশনে শুধু স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে ভর্তি সার্কুলার হচ্ছে। কিন্তু আমাদের ব্যপারে কোনো কিছু বলা নেই। তখন আমরা হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ি।
 
এইম বাংলাদেশ মেডিকেল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির অধ্যক্ষ ডা. সানজিদা আলম মৌসুমী বলেন, দুইটা সেশন ভর্তি বন্ধের কারণে দেখা যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানগুলো প্রায় স্থবির হয়ে যাওয়ার যোগ্য।

প্রতিষ্ঠানগুলো বলছে, কারিগরি বোর্ডের অধীনে নিবন্ধিত তাই নতুন করে নিবন্ধন নিতে রাজি নয় তারা।
 
বোর্ড অ্যাফিলিয়েড সোসাইটি ফর মেডিকেল টেকনোলজি ইনস্টিটিউশন্সের সভাপতি অধ্যাপক ড. আবদুল বাসেদ বলেন, আমরা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনের ২০১০ সালের নীতিমালা মেনে নতুন করে নিবন্ধন করতে আগ্রহী নই। কারণ, আমরা কারিগরি বোর্ডের অধীনে নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠান। বিদ্যমান জটিলতা নিরসনে আমাদের নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।
 
আর স্বাস্থ্য সচিব বলছেন, নিবন্ধন ছাড়া এ জটিলতার সমাধান সম্ভব নয়।
 
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সাইফুল ইসলাম বাদল বলেন, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগ, নীতিমালার আলোকে তাদের নিবন্ধিত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে এবং যারা নিবন্ধিত হবেন তারা যথারীতি সব কার্যক্রম পরিচালিত করতে পারবেন। কিন্তু উনারা যদি মা আসেন তাহলে তো আর হবে না। সত্যিকার অর্থে যদি অন্তর্নিহিত কোনো সমস্যা থাকে তাহলে আলোচনা করে সমাধানের উদ্যোগ নেওয়া যেতে পারে।
 
দেশে ডিপ্লোমা ইন মেডিকেল টেকনোলজি কোর্স পরিচালনার ক্ষেত্রে ওয়ান আমব্রেলা কনসেপ্ট বাস্তবায়নে ২০১৭ সালে উচ্চ আদালতের আপিল বিভাগ নির্দেশনা আলোর মুখ না দেখাতেই জটিলতা বাড়ছে বলে মত সংশ্লিষ্টদের।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

শিক্ষা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image