• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০১ জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

পদ্মা সেতু বাংলাদেশের জন্য গৌরবের বিষয়: কাদের সিদ্দিকী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ১৮ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৮:২৩ পিএম
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ভাসানীকে কি স্মরণ করা হবে?

নিউজ ডেস্ক:   বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ‘পদ্মা সেতু বাংলাদেশের জন্য গৌরবের বিষয়, মাথা নত না করা বাংলাদেশের পরিচয়। এই সেতু নিয়ে হিংসা করার কিছু নেই। পদ্মা সেতু যেমন আমার, তেমনই বিএনপি-জামায়াতে ইসলামীরও। বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকেরই অহংকার পদ্মা সেতু। এটি সবার অনুধাবন করতে হবে।’

শুক্রবার জাতীয় জাদুঘরে ‘একাত্তর-পঁচাত্তরের প্রতিবাদী যোদ্ধা বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম এবং মৃত্যুহীন মুজিব সন্তানেরা’ শীর্ষক কথামালা ও সংগীতসন্ধ্যায় তিনি এ কথা বলেন।

‘আমরা সূর্যমুখী’ নামের একটি সংগঠন আয়োজিত অনুষ্ঠানে কাদের সিদ্দিকী বলেন, দেশের অবস্থা ভালো না। সেখান থেকে উত্তরণের উপায় বের করতে হবে। আগামী ২৩ জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ভাসানীকে কি স্মরণ করা হবে? আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতাদের কি স্মরণ করা হবে? আমরা জাতিগতভাবে ভাগ হয়ে গেছি। এ রকম ভাগ হওয়া জাতি টিকতে পারে না। আমাদের জাতীয় ঐক্য থাকা দরকার।

প্রধানমন্ত্রীর পাশে তার শত্রুরা উল্লেখ করে বঙ্গবীর আরও বলেন, আমি ভালো করে ঘুমাতে পারি না আমার বোনের চিন্তায়। তাকে বিপদে ফেলার জন্য সবাই চতুর্দিক থেকে চাপে ফেলছে। তিনি বুঝতে পারছেন না। আজকে মতিয়া চৌধুরী, শাজাহান খান, হাসানুল হক ইনুরা আমার বোনের কাছে, আর আমি হচ্ছি শত্রু  ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী ছিলেন ১৯৭১ ও ১৯৭৫-এর প্রতিরোধ যোদ্ধা। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে যারা ছিলেন, তারা আজ জাতীয় নেতৃত্বে নেই। তারা আজকে অবহেলিত। বাঙালি আজ বঙ্গবন্ধুকে ধারণ করতে দারুণভাবে ব্যর্থ। বঙ্গবন্ধুর ভাষণকেও বিকৃত করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধুকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে। তথ্য মন্ত্রণালয়ও ভুল করছে। এভাবে বঙ্গবন্ধুকে ধারণ করা যায় না। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে অনুষ্ঠান হয়, দিবস পালন করা হয়, রাজনীতি, ব্যবসা, ফন্দি-ফিকির সব হয়; কিন্তু বঙ্গবন্ধু আজও অজানা।’

তিনি বলেন, ‘যারা বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীকে অবজ্ঞা করেন, তারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি বললেও তারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি নন। যারা বঙ্গবন্ধুর জন্য কাজ করেছেন, তাদের মূল্যায়ন না করলে ইতিহাসকে অস্বীকার করা হবে। এখনকার রাজনীতিকরা দেশকে ভালোবাসেন না, মানুষকে ভালোবাসেন না, তারা অর্থকে ভালোবাসেন।’

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবুল হাসনাত চৌধুরী কায়সার, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর সহধর্মিণী কাজী নাসরিন সিদ্দিকী, একুশে পদকপ্রাপ্ত সংগীতশিল্পী ফাতেমাতুজ্জোহরা, সংগীতশিল্পী খুরশিদ আলম, সাংবাদিক সোহরাব হোসেন, আমরা সূর্যমুখীর নির্বাহী পরিচালক শফিকুল ইসলাম সেলিম প্রমুখ।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

রাজনীতি বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image