• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

গাজায় স্থল অভিযান ফিলিস্তিনে ভূমিকম্পের সামিল : ইরান


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৬:১৬ পিএম
হিজবুল্লাহ
হিজবুল্লাহ র পতাকা, ফাইল ছবি

নিউজ ডেস্ক: ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান গাজায় বিমান হামলা বন্ধ করার জন্য ইসরাইলকে আহ্বান জানিয়েছেন, তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন  ইসরায়েল যদি গাজা ভূখন্ডে স্থল বাহিনী পাঠায়, তবে লেবাননের জঙ্গি গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ মাঠে প্রবেশ করবে। এতে হামাসের সাথে সংঘর্ষ পুরো অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

শনিবার বৈরুতে সাংবাদিকদের সাথে এক ব্রিফিংয়ে আমির-আব্দুল্লাহিয়ান বলেন, "হিজবুল্লাহ যে পরিস্থিতি তৈরি করেছে সে সম্পর্কে তিনি অবগত আছেন।" "প্রতিরোধের যে কোনো পদক্ষেপ ইসরায়েলের জন্য একটি বিশাল ভূমিকম্পের মতো হবে। 

কূটনৈতিক সূত্র মতে, ইরান যুদ্ধের বিস্তার রোধ করার চেষ্টা করছে এবং গাজায় ইসরায়েলি বেসামরিক জিম্মিদের সাহায্য করার চেষ্টা করছে।  কিন্তু যদি সামরিক অভিযান অব্যাহত থাকে এবং ইসরাইল স্থল আক্রমণে এগিয়ে যায়, তাহলে ইরান এই যুদ্ধে নামতে বাধ্য হবে।

ইসরায়েলি হামলার প্রতিক্রিয়ায় এ অঞ্চলে একটি গভীর সঙ্কটের সৃষ্টি করবে।," ইরানের এই মন্ত্রী বলেন, "হয়তো, আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যে এমনটি হবে, যার কারণে সংলাপ/সমঝোতায় দেরি হয়ে যেতে পারে।"

এই সপ্তাহে, শীর্ষ ইরানি কূটনীতিক ইরাক, সিরিয়া এবং লেবানন সফর করেন, যেখানে তিনি হিজবুল্লাহ নেতা সাইয়্যেদ হাসান নাসরাল্লাহ এবং সেইসাথে লেবাননের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে "সম্ভাব্য ফলাফল" এবং " কি ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত" তা  নিয়ে আলোচনা করেন। 

 মধ্যপ্রাচ্য পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে 

 জাতিসংঘে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত লেবাননের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লাহ বো হাবিবের সাথে এক বৈঠকে মিলিত হন, আব্দুল্লাহ বো হাবিব গাজার জনগণের বিরুদ্ধে ইসরায়েলকে "যুদ্ধাপরাধ" করার জন্য অভিযুক্ত করেছেন এবং  হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইসরাইল যদি  না থামে, "যেকোন অশুভ ঘটনা ঘটতে পারে।" বো হাবিব বলেন, লেবানন "কখনও যুদ্ধ চায়নি " তিনি বলেন, আরও উত্তেজনা "এ অঞ্চলকে আরো উত্তপ্ত করবে। এ অঞ্চলে নিরাপত্তা ও শান্তির জন্য হুমকি হয়ে দেখা দেবে।" তিনি বলেন, আমরা আমাদের ফিলিস্তিনি ভাইদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করছি এবং অবরোধের অবসান এবং গাজায় সাহায্য বিতরণের আহ্বান জানাচ্ছি," ।

প্রসঙ্গত, হিজবুল্লাহ যোদ্ধারা লেবানন সীমান্তে পূর্ণ সতর্কতা অবলম্বন করছে। গত শনিবার হামাসের আক্রমণের পর থেকে ইসরায়েলের সাথে বিক্ষিপ্তভাবে গুলি বিনিময় করেছে তারা, যার ফলে কমপক্ষে ১৩০০ ইসরায়েলি বেসামরিক ও সৈন্য নিহত হয়েছে।

ইরান-সমর্থিত এই গোষ্ঠীটিকে ইসরায়েলের জন্য একটি বড় হুমকি হিসাবে বিবেচনা করা হয়, কারণ এর কাছে প্রায় দেড় লক্ষ রকেট এবং ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে যা ইস্রায়েলের যে কোনও জায়গায় পৌঁছাতে পারে, সেইসাথে হাজার হাজার শক্তিশালী যোদ্ধা এবং বিভিন্ন ধরণের সামরিক ড্রোন রয়েছে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

আরো পড়ুন

banner image
banner image